কক্সবাজারে ইসলামী সাহিত্য ও গবেষণা পরিষদ কর্তৃক জাগ্রত কবি মুহিব খান সংবর্ধিত

মাহবুবুল মান্নান


পবিত্র কুরআনের প্রথম পূর্ণাঙ্গ ও বিশুদ্ধ কাব্যানুবাদের মত বিরল কৃতিত্ব স্থাপন করায় জাগ্রত কবি মুহিব খানকে সংবর্ধিত করেছে কক্সবাজার ইসলামী সাহিত্য ও গবেষণা পরিষদ।

কুরআনুল কারীমের পূর্ণাঙ্গ কাব্যানুবাদ সুসম্পন্ন করার পর কবি প্রথমবারের মত কক্সবাজারে এক সংক্ষিপ্ত সফরে আসেন। সফর শেষে বিদায়লগ্নে মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) রাতে কক্সবাজার ইসলামী সাহিত্য ও গবেষণা পরিষদ নেতৃবৃন্দ এক সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হয়ে প্রিয় কবিকে ফুলেল সংবর্ধনা জানান।

ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হয়ে জাগ্রত কবি মুহিব খান বলেন, মুসলিম জাতিসত্তা ও আদর্শিক চেতনা সমুন্নত রাখতে ভিনদেশি ভাষা-সংস্কৃতির আগ্রাসন রুখে দাঁড়াতে হবে। চলমান সঙ্কট উত্তরণে কুরআন-সুন্নাহর শাশ্বত পয়গাম ছড়িয়ে দেয়ার মাধ্যমে সুস্থধারার সাংস্কৃতিক জাগরণ ও মানবিক চেতনার উজ্জীবন ঘটানোর বিকল্প নেই। এ লক্ষ্যে কার্যধারা অব্যাহত রাখার জন্য তিনি ইসলামী সাহিত্য ও গবেষণা পরিষদ নেতৃবৃন্দকে অনুপ্রাণিত করেন।

সংগঠনের সভাপতি মাওলানা নুরুল হক চকোরীর সভাপতিত্বে সংক্ষিপ্ত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা কাযী মোহাম্মদ এরশাদুল্লাহ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, রামু লেখক ফোরামের সভাপতি হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুর, ইসলামী সঙ্গীত শিল্পী হাফেজ রিয়াদ হায়দার, সংবাদকর্মী মহিউদ্দিন মাহী, সাহিত্যকলি সম্পাদক এহছানুল হক, রামু লেখক ফোরামের সহযোগী সদস্য মাওলানা আব্দুল্লাহ হোসাইনী,হাফেজ আব্দুল করিম প্রমুখ।

এসময় কবি মুহিব খান ও তাঁর শিশুপুত্র আরসালানকে তরুণ লেখক হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুরের স্বরচিত কাব্যগ্রন্থ “বিশ্বাসের পঙক্তিমালা” এবং সাহিত্যের ছোট্ট কাগজ “মাসিক সাহিত্যকলি” হাদিয়া দেয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *