এবার অন্তঃসত্ত্বা গাভিকে বিস্ফোরক খাইয়ে মারার চেষ্টা করলো ভারতীয়রা (ভিডিও)

বিস্ফোরক ভর্তি আনারস খাইয়ে ভারতের কেরালায় একটি অন্তঃসত্ত্বা হাতি হত্যার প্রতিবাদের জের না থামতেই দেশটিতে এমন আরও একটি নৃশংস ঘটনার খবর আসলো। হিমাচল প্রদেশে অন্তঃসত্ত্বা একটি গাভিকে বিস্ফোরকভর্তি ময়দার গোলা খাইয়ে গুরুতরভাবে জখম করা হয়েছে।

শিমলার নিকটবর্তী বিলাসপুর জেলায় ঘটনাটি ঘটে বলে শনিবার পিটিআইয়ের বরাত দিয়ে জানিয়েছে দ্য হিন্দু। এ ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বিস্ফোরকে গাভিটির চোয়াল উড়ে যায়। মালিকের দাবি, গরুটির গলাতেও গভীর ক্ষত তৈরি হয়েছে। তবে মারাত্মক জখম অবস্থায় এখনো বেঁচে রয়েছে গরুটি।

গত মাসের শেষ দিকে ঘটনাটি ঘটলেও গাভিটির মালিক গুরদয়াল সিং একটি ভিডিও তৈরি করে তা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করে বিচার প্রার্থনা করলে সবার নজরে আসে।

অবশ্য পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঘটনাটি ঘটে গত ২৫ মে। পরের দিন এ নিয়ে থানায় মামলাও দায়ের করেন গুরুদয়াল সিং। এ ঘটনায় নন্দলাল নামে একজনে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গুরুদয়াল সিংয়ের দাবি, তার প্রতিবেশী নন্দলালই ওই ঘটনার জন্য দায়ী। তার জমিতে প্রায়ই গরুটি চলে যেত।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বিলাসপুর পুলিশ সুপার দেওকর শর্মা। তিনি জানান, ময়দার মধ্যে বিস্ফোরক ভরে একটি দলা বানানো হয়েছিল। গরুটির ঘাস খাওয়ার সময় সেটিও খেতে গেলে মুখের মধ্যে ফেটে যায়।

উল্লেখ্য, কয়েক দিন আগেই কেরালার মল্লপুরমে একটি অন্তঃসত্ত্বা হাতি বিস্ফোরক ভরা একটি আনারস খেয়ে ফেলে। সেই বিস্ফোরক ফেটে গিয়ে তার মুখ ও গলার গভীর ক্ষত তৈরি হয়ে যায়। টানা ১৪ দিন না খেয়ে, যন্ত্রণায় ছটফট করে শেষ পর্যন্ত মারা যায় হাতিটি। তা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *