নাটোরে প্রতিবন্ধী শিশুকে বেঁধে নির্যাতন

নাটোরে এক প্রতিবন্ধী শিশুকে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে সাবেক এক পুলিশ সদস্য ও তার স্ত্রী-শ্যালকের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় এলাকাবাসী ক্ষুদ্ধ হয়ে বাড়ি ঘেরাও করলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং শিশুটিকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

শনিবার দুপুরে শহরের হরিশপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানায়, দুপুরে হরিশপুর চেয়ারম্যানপাড়া এলাকায় ক্রিকেট খেলছিল কিছু শিশু। এক পর্যায়ে বল চলে যায় ওই পুলিশ সদস্যের বাড়িতে। এ সময় বাকপ্রতিবন্ধী জাবেদ হোসেন বল আনতে ওই বাড়ি ঢুকলে তাকে বেঁধে নির্যাতন চালায় পরিবারটি।

বিষয়টি টের পেয়ে এলাকাবাসী বিক্ষুদ্ধ হয়ে বাড়ি ঘেরাও করে। খবর পেয়ে অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য হাবিবুর রহমান ঘটনাস্থলে গেলে তাকে লাঞ্ছিত করে স্থানীয় জনতা। পরে জনতার রোষানল এড়াতে হাবিবুর রহমান, তার স্ত্রী শাহানাজ পারভীন ও শ্যালক মাহফুজুর রহমান পুলিশের পিকআপে উঠে আত্মরক্ষা করেন।

হাবিবুর রহমানের দাবি, শিশু জাবেদকে বেঁধে রাখা হয়েছিল কিন্তু মারা হয়নি।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশ সদস্যরা এ ব্যাপারে কোনো কথা বলেননি।

নাটোর পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নান্নু শেখ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে অভিযুক্তদের বিচার দাবি করেছেন।

সূত্র: ইউএনবি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *