ফ্রান্সবিরোধী বিক্ষোভ দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কে প্রভাব ফেলবে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় সহায়তায় মহানবী হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে অবমাননার প্রতিবাদে দেশে চলমান তাওহীদী জনতার ফ্রান্সবিরোধী বিক্ষোভ দেশটির সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কে কোনও প্রভাব ফেলবে না বলে মনে করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

তিনি বলেন, দুই দেশের সম্পর্কে কোনও বিরূপ প্রভাব পড়বে না। আপনারা দেখেছেন যে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টও বলেছেন এই বিষয় সম্পর্কে ওনার অবস্থান অনেক নমনীয় হয়ে এসেছে।

বুধবার (৪ নভেম্বর) নিজের অফিসে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

বিভিন্ন সংগঠন ফ্রান্সবিরোধী মন্তব্য ও বিভিন্ন দাবি তুলছে- এবিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘কেউ কেউ মতামত দিয়েছে দূতাবাস বন্ধ করা বা অন্য কিছু। কিন্তু আমরা মনে করি ধর্ম ও ব্যবসা এক করা ঠিক হবে না।’

চলমান বিক্ষোভ ইউরোপ কীভাবে নিচ্ছে সে বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা একটি গণতান্ত্রিক দেশ এবং সবার মত প্রকাশের অধিকার আছে। তারা কোনও হিংসাত্নক কাজ করছে না, ঘরবাড়ি ভাঙছে না। ইউরোপে যদি তারা দেখে, তবে কোনও অসুবিধা নাই। মানুষ তো তার মনোভাব ব্যক্ত করতেই পারে। কিন্তু সরকার এব্যাপারে বলেছে, আমরা কারও মৃত্যু চাই না। সেই সঙ্গে এটাও বলেছি, স্পর্শকারত বিষয়ে আমাদের সংযত হওয়া উচিত।

আন্দোলন সম্পর্কে মতামত জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, অবশ্যই তারা তাদের মতামত দেবে এবং এই স্বাধীনতা আমরা সারাদেশে দিয়ে রেখেছি। আমরা যেটা চাই, এই ধরনের কার্যকলাপ যেন হিংসাত্নক না হয়। কিন্তু জনগণের অধিকার আছে তাদের মতামত দেওয়ার। নিজেদের অভিব্যক্তি এমনভাবে প্রকাশ করবে যাতে করে অন্যরা আক্রান্ত না হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *