বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২৭, ২০২২

‘কুষ্টিয়ার এসপি’র বক্তব্য ঔদ্ধত্যপূর্ণ ও উস্কানীমূলক’

কুষ্টিয়ায় বাঘা যতীনের ভাস্কর্য ভাঙচুরের প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত এক সভায় ওলামায়ে কেরামকে নিয়ে কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এস এম তানভীর আরাফাতের তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার (২৪ ডিসেম্বর) গণমাধ্যমে পাঠানো এক যৌথ বিবৃতিতে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মহাসচিব মাওলানা ইউনুছ আহমাদ ও যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান কুষ্টিয়ার এসপি’র বক্তব্যের কড়া নিন্দা জানান।

নেতৃদ্বয় বলেন, কুষ্টিয়ার এসপি প্রজাতন্ত্রের একজন কর্মচারী হয়ে যে ভাষায় বক্তব্য দিয়েছেন, তা প্রজাতন্ত্রের আইনের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। পুলিশ প্রশাসনের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা হয়ে তিনি শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষার কথা না বলে সাম্প্রদায়িকতা উস্কে দিয়ে সম্প্রীতি বিনষ্টের ষড়যন্ত্র করেছেন।

নেতৃদ্বয় আরও বলেন, এসপি এস এম তানভীর আরাফাত জনগণের একটি বিশাল অংশকে যেভাবে ডিক্টেটরের মতো তিনটি অপশন দিয়ে ফরমান যারি করেছেন,তা সুস্পস্টভাবে বাকস্বাধীনতা ও সংবিধানের লঙ্ঘন। এ ধরণের বক্তব্য প্রশাসনের কোন কর্মকর্তার হতে পারে না। এ ধরণের উগ্র ব্যক্তি প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ পদে এখন পর্যন্ত কিভাবে বহাল থাকে, তা আমাদের বোধগম্য নয়। এসপির কথাবার্তায় মনে হয়েছে পুলিশি পোশাকে তিনি একজন সন্ত্রাসী বা উগ্র রাজনীতিবিদ। জনগণের টেক্সের পয়সায় পরিচালিত এমন উগ্র এসপি’র প্রয়োজন আছে বলে দেশবাসী মনে করেন না।

পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ বিষয়টি আমলে নিয়ে কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার (এসপি) এস এম তানভীর আরাফাত-এর বিরুদ্ধে যথাযথ পদক্ষেপ নিবে আশা ব্যক্ত করেছেন নেতৃদ্বয়।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img