বেফাকের সভাপতি পদে আগ্রহী নন জানানোর পড়েও ভোট পেলেন আল্লামা বাবুনগরী!

বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ-বেফাক এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মনোনীত হয়েছেন মাওলানা মাহমুদুল হাসান।

আজ এক বৈঠকে তাকে মনোনীত করে বেফাকের মজলিসে আমেলা বা কার্জকরি পরিষদ। মৌখিকভাবে মনোনীত করার রেওয়াজ থাকলেও এবার ব্যালটের মাধ্যমে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মনোনীত করা হয়েছে।

১২৬ সদস্যার মধ্যে ৬৬ সদস্য মাওলানা মাহমুদুল হাসানের পক্ষে মতামত দেন। অন্যদিকে ৫০ সদস্য মতামত দেন আল্লামা নূর হুসাইন কাসেমীর পক্ষে। এই দুজনকেই যেকোনো একজন বেফাকের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি পদে আসবেন বলে ধারণা করা হচ্ছিলো আগে থেকেই। যদিও তাদের কেউই ঘোষিত পদপ্রার্থী ছিলেন না।

এদিকে আলোচনার বাহিরে থাকলেও ৩ সদস্য বেফাকের সভাপতি পদে আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরীর পক্ষে মতামত দেন। যেহেতু আল্লামা বাবুনগরী এই পদে পদপ্রার্থী বা আগ্রহী ছিলেন না, তারপরেও কে বা কোন উদ্দেশ্যে ৩ জন তার পক্ষে মতামত দিলেন, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে ধুম্রজাল।

বেফাকের অন্যতম সহসভাপতি মাওলানা বাহাউদ্দীন জাকারিয়া ইনসাফকে বলেন, ”আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ, ইন্তিকাল করায় আজকের বেফাকের আমেলা আগামী কাউন্সিল পর্যন্ত ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মনোনীত করেছে। এখানে সকল আমেলা সদস্য লিখিতভাবে তাদের মতামত দিয়েছেন। কেউ পদপ্রার্থী হননি বা কাউকে প্রার্থী করাও হয়নি। সহ-সভাপতিদের মধ্যে জ্যেষ্ঠতা বিবেচবনায় আল্লামা নূর হুসাইন কাসেমী এবং জ্যেষ্ঠ আলেম হিসেবে আল্লামা মাহমুদুল হাসানকে সভাপতির পদে মতামত দেন আমেলার সদস্যগণ। এখানে আল্লামা বাবুনগরীর বিষয়টি অহেতুক আলোচনায় আনা হচ্ছে। এটা দূরভিসন্ধিমূলক। কেউ হয়ত তার পক্ষেও মতামত দিয়ে থাকতে পারেন। এ নিয়ে হৈচৈ করা বুদ্ধিমানের কাজ নয়।”

বেফাকের আমেলার একাধিক সদস্যের সাথে কথা বলে জানা গেছে, আল্লামা বাবুনগরী সভাপতি বা অন্য কোনও পদ গ্রহণে আগ্রহী ছিলেন না। এমনকি সিনিয়র সহসভাপতির পদে তাঁর নাম প্রস্তাব করা হলে, তিনি তা গ্রহণে অস্বীকৃতি জানান।

বেফাকের সহসাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মীর ইদরীস নদভী ইনসাফকে বলেন, ”আল্লামা বাবুনগরী বেফাক বা হাইয়াতুল উলিয়ার পদ গ্রহণে আগ্রহী ছিলেন না। এটা তিনি বৈঠকের শুরুর দিকটায় স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন। তারপরেও একাধিক সদস্য ভালোবেসে তাঁর পক্ষে মতামত দিয়েছেন। এটা আল্লামা বাবুনগরীর প্রতি মানুষের ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ। না হয় পদ গ্রহণ না করার ঘোষণা দেওয়ার পরেও একাধিক সদস্য তাঁর পক্ষে মতামত দিতেন না।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *