রবিবার, ডিসেম্বর ৪, ২০২২

আগামীকাল আরজাবাদ মাদরাসার প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী সম্মেলন

আগামীকাল শনিবার অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে দেশের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রাজধানীর মিরপুরের জামিয়া হোসাইনিয়া ইসলামিয়া আরজাবাদের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী ‘আবনায়ে আরজাবাদ সম্মেলন’।

শনিবার (১২ নভেম্বর) সকাল নয়টা থেকে শুরু হয়ে আয়োজন চলবে সন্ধ্যা পর্যন্ত। আয়োজনে যোগ দিতে ইতোমধ্যেই প্রায় তিন হাজার প্রাক্তন শিক্ষার্থী নিবন্ধন সম্পন্ন করেছে।

প্রাক্তন ছাত্রদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে বিগত পঞ্চাশ বছরে আরজাবাদ মাদরাসা থেকে হিফজ, দাওরায়ে হাদিস ও ইফতা সমাপ্তকারী ছাত্রদের পাশাপাশি রমজানের বিশেষ কোর্স এবং আরজাবাদ মাদরাসায় যেকোনো এক বছর পড়ালেখা করেছেন এমন শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণের সুযোগ পাচ্ছেন।

দেশের অন্যতম দীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রাজধানীর জামিয়া হোসাইনিয়া ইসলামিয়া আরজাবাদ, মিরপুর। ১৯৭০ সালে প্রতিষ্ঠিত এই মাদরাসায় ১৯৮৫-৮৬ শিক্ষাবর্ষে দাওরায়ে হাদিসের দরস শুরু হয়। এর আগে থেকেই হিফজসহ অন্যান্য বিভাগ চালু ছিল। পরবর্তী সময়ে পবিত্র রমজান মাসে তাফসির ও ফেরাকে বাতেলাসহ বিশেষ কোর্স চালু হয়। ২০০০ সালে খোলা হয় ইফতা বিভাগ।

ঐতিহ্যবাহী জামিয়া আরজাবাদের সঙ্গে জড়িয়ে আছে আল্লামা শামছুদ্দীন কাসেমী (রহ.), মাওলানা মোস্তফা আজাদ (রহ.), মাওলানা রিজাউল কারিম ইসলামাবাদী (রহ.)-এর মতো গুণীজনদের স্মৃতি। বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটির মুহতামিদের দায়িত্ব পালন করছেন আল্লামা শামছুদ্দীন কাসেমী (রহ.)-এর বড় ছেলে মাওলানা বাহাউদ্দীন যাকারিয়া।

মাওলানা বাহাউদ্দিন যাকারিয়া জানিয়েছেন, প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনীতে সময়ের যোগ্য সারথিরা হাজির হবেন। যেখানে তাদের শৈশব, শিক্ষাকাল ও গড়ে ওঠার নানা ইতিহাস রচিত হয়েছে। অর্ধ শতবর্ষের গৌরবগাঁথাময় পুনর্মিলনীর এই আয়োজন সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করতে ভূমিকা রাখবে। আমাদের প্রস্তুতি চূড়ান্ত। শুধু অপেক্ষা অনুষ্ঠানের।

জামিয়া আরজাবাদের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী সম্মেলন দীর্ঘদিনের স্বপ্নে ফসল উল্লেখ করে সম্মেলনের প্রচার উপ-কমিটির প্রধান মুফতি এনায়েতুল্লাহ জানান, জামিয়া আরজাবাদের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী সম্মেলন ‘আবনায়ে আরজাবাদ সম্মেলন-২২’ নামে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সম্মেলনকে সফল ও সুন্দর করতে একাধিক উপ-কমিটি গঠিত হয়েছে। দেশের নানা সেক্টরে আলো ছড়ানো আরজাবাদের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা তাদের অভিজ্ঞতা, পরিকল্পনা ও স্বপ্নের কথা একে-অপরের সঙ্গে শেয়ার করবেন। সম্মেলনে আরজাবাদ মাদরাসার সাবেক ও বর্তমান শিক্ষকদের বিশেষ সম্মাননা জানানো হবে। এ উপলক্ষে মাসিক পয়গামে হক্বের একটি বিশেষ সংখ্যা বের করা হয়েছে। সংখ্যাটি সাজানো হয়েছে আরজবাবাদ মাদরাসার মরহুম, সাবেক এবং বর্তমান শিক্ষকদের জীবনী দিয়ে। এছাড়া অংশগ্রহণকারীদের জন্য থাকছে বিভিন্ন স্মারক সম্বলিত উপহার।

সম্মেলন বাস্তবায়ন কমিটির পক্ষে জানানো হয়েছে, সম্মেলনে অংশ নিতে আসা প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের নির্মানাধীন নতুন ভবনের নিচতলায় অবস্থিত বুথ থেকে টোকেন সংগ্রহ করতে হবে। প্রথম বুথে ১-৫০০, দ্বিতীয় বুথে ৫০১-১০০০, তৃতীয় বুথে ১০০১-১৫০০, চতুর্থ বুথে ১৫০১-২০০০ ও পঞ্চম বুথে ২০০১-২৫০০ ক্রমিক নম্বর পর্যন্ত নিবন্ধিতরা দুটি টোকেন সংগ্রহ করবেন। একটি খাবারের, অন্যটি গিফট সংগ্রহের। টোকেনে খাবার ও গিফট সংগ্রহের স্থান উল্লেখ থাকবে। এছাড়া প্রধান ফটকের বাইরে অভ্যর্থনা বুথ থাকবে যেকোনো সমস্যা, পরামর্শ কিংবা অনুসন্ধানের জন্য।

spot_img
spot_img

সর্বশেষ

spot_img