সোমবার, জুন ২৪, ২০২৪

অতীতে ধর্ষণের সুষ্ঠু বিচার না হওয়ায় ধর্ষণ বন্ধ হচ্ছে না: খেলাফত আন্দোলন

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের মহাসচিব মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াজী বলেছেন, দেশে আজ যিনা-ব্যভিচার, জুলুম-নির্যাতন, খুন-ধর্ষনের কারনে চরম দূরাবস্থা চলছে। অতীতে ধর্ষণের সুষ্ঠু বিচার না হওয়ায় ধর্ষণ বন্ধ হচ্ছে না। ধর্ষকের সাথে বিবাহ দিয়ে দেওয়া কোন আইনি সমাধান হতে পারে না। এতে ধর্ষকরা অনৈতিক কাজে আরো উৎসাহ পাবে। এ ধরনের স্বেচ্চাচারী ফায়সালা সঠিক বিচার ব্যবস্থার দৈন্যতার বহিঃপ্রকাশ। এ জটিল পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে আল্লাহ প্রদত্ত্ব খেলাফত শাসন ব্যবস্থাই একমাত্র পথ। কেননা ইনসাফ ভিত্তিক খেলাফত শাসন ব্যবস্থাই পারে সকল ক্ষেত্রে দেশের জনগনের ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে। তাছাড়া ধর্মহীন রাজনীতি বা বিধর্মীদের আমদানী করা ফর্মূলা তন্ত্র- মন্ত্রের মাধ্যমে দেশে শান্তি বা জনগনের ন্যায্য অধিকারের আশা করা চরম বোকামী।

মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) বিকালে হবিগঞ্জের কাটখালীতে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন।

হবিগঞ্জ জেলা আমীর মাওলানা আরিফ বিল্লাহর সভাতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন খেলাফত আন্দোলনের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক আতিকুর রহমান নান্নু মুন্সি, মাওলানা আব্দুল কাদির, মাওলানা সাব্বির আহমেদ, মাওলানা জুনায়েদ আহমদ কাটখালী, মাওলানা হাকিম সিরাজুল ইসলাম, মাওলানা কাসিম বিল্লাহ নোমান, হাফেজ আশিকুর রহমান, মাওলানা মোখলেছুর রহমান, মাওলানা নাসির উদ্দিন ও আব্দুল মজিদ প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী বলেন, ভাস্কর্যের নামে মূর্তি স্থাপন ও ইসলামী রাজনীতি বন্ধের ষড়যন্ত্র ধর্মপ্রাণ জনতা কখনো বরদাশত করবে না। সব ধরনের ষড়যন্ত্রের মোকাবেলায় খেলাফত আন্দোলনের প্রতিটি কর্মী জনগণকে সাথে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাঁড়াতে হবে।

আতিকুর রহমান নান্নু মুন্সী বলেন, কুরআন সুন্নাহর পরিপূর্ন বাস্তব অনুশীলনের মাধ্যমে দেশে সৎ, চরিত্রবান, দেশপ্রেমিক ও সুনাগরিক তৈরী সকল অপরাধ নির্মূল হবে।

সভাপতির ভাষণে মাওলানা আরিফ বিল্লাহ বলেন, সুন্দর ও আদর্শ রাষ্ট্র গঠনে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ইসলামী হুকুমত প্রতিষ্ঠার কাজ করতে হবে। যতদিন পর্যন্ত কোরআনের শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা না হবে ততদিন পর্যন্ত এর জন্য চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে।

সভায় মাওলানা আরিফ বিল্লাহকে সভাপতি ও মাওলানা জুনায়েদ আহমদ কাটখালীকে সাধারন সম্পাদক করে ২১ সদস্য বিশিষ্ট বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন হবিগঞ্জ জেলা কমিটি পূনঃগঠন করা হয়।

spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_img
spot_img