মুসলিম ব্রাদারহুডকে সন্ত্রাসী সংগঠন ঘোষণা সৌদির; স্বাগত জানিয়েছে ইসরাইল

মুসলিম ব্রাদারহুডকে সন্ত্রাসী সংগঠন দাবি করে তাকে তালিকাভুক্ত করেছে সৌদি আরবের রাজতান্ত্রিক সরকার। দেশটির এমন বেআইনি সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে ইহুদীবাদী সন্ত্রাসীদের অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইল।

রোববার (১৫ নবেম্বর) ইসরাইলি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে সৌদির সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে টুইট করা হয়।

এতে ইহুদীদের এ অবৈধ রাষ্ট্র থেকে দাবি করা হয়েছে, ইসলামকে ব্যবহার করে ব্রাদারহুড যে উস্কানি ও রাষ্ট্রদোহ করে আসছে, তার বিরুদ্ধে সৌদি আরবের এমন সিদ্ধান্তে ইসরাইল খুশি। টুইটে সহনশীলতা ও পারস্পারিক সহযোগিতার ওপর বিশেষ জোরও দেওয়া হয়েছে। সৌদি আরবের কাউন্সিল অব সিনিয়র স্কলার্স (সিএসএস) মুসলিম ব্রাদারহুডকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে তালিকাভুক্তির পরপরই রোববার ওই টুইট করা হয়।

এর আগে গত মঙ্গলবার সৌদি আরবের স্কলারদের কাউন্সিল থেকে ব্রাদারহুডকে মধ্যপ্রাচ্যে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির হোতা হিসেবে অভিযুক্ত করা হয়। এর ভিত্তিতেই ব্রাদারহুডের সকল কার্যক্রমকে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড হিসেবে তালিকাভুক্ত করার ঘোষণা দেয় সৌদি আরব এর রাজতান্ত্রিক সরকার।

দেশটি আগে থেকেই ব্রাদারহুড ও এই ধারার অন্য ইসলামী দলগুলোর বিষয়ে দমনমূলক আচরণ অব্যাহত রেখেছে। বিষয়টিকে ইতিবাচকভাবে দেখে ইহুদীবাদী সন্ত্রাসীদের অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলও। ফিলিস্তিনের সশস্ত্র সংগঠন ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের সঙ্গে ব্রাদারহুডের আদর্শিক মিল থাকায় একে নিজের জন্যেও হুমকি মনে করে ইসরাইল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *