শুক্রবার, জুন ২৫, ২০২১

‘ফ্রান্সকে এহেন জঘন্য কর্মকান্ড বন্ধ করতে বাধ্য করতে হবে’

সম্প্রতি ফ্রান্সের মন্টোপলিস ও ত্বলুসে শহরের দু’টি সরকারী ভবনে রাষ্ট্রীয়ভাবে মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ব্যঙ্গ কার্টুণ প্রদর্শণের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশের সমমনা ইসলামী দলসমূহ।

আজ প্রদত্ত এক যৌথ বিবৃতিতে সমমনা ইসলামী দলসমূহের নেতৃবৃন্ধ বলেন, ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে অবমাননায় বিশ^মুসলিম চরমভাবে ব্যথিত ও ক্ষুব্ধ। গত ২১ অক্টোবর ফ্রান্সের দক্ষিনাঞ্চলীয় মন্টোপলিস ও ত্বলুসে শহরের দু’টি সরকারী ভবনে পুলিশী পাহাড়ায় মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ব্যঙ্গ কার্টুণ প্রদর্শণ করা হয়েছে। ফ্রান্সের কুখ্যাত রম্য পত্রিকা শার্লি হেবদোতে ২০১৫ সালে এসব অবমাননাকর কার্টুণ প্রকাশতি হয়েছিলো। তখন সারা দুনিয়ার মুসলমানরা বিক্ষোভে ফেটে পরেছিলো। বর্তমানে ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয়ভাবে ইসলাম বিদ্বেষ ছড়ানো হচ্ছে তার অন্যতম প্রমান হচ্ছে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইনামুয়েল ম্যাক্রনের ইসলাম বিদ্বেষী বক্তব্য। ‘ইসলাম নিয়ে বিশ্ব সংকটে আছে’ ম্যাক্রনের এ বিতর্কিত ও ইসলাম বিদ্বেষী বক্তব্যের পর সরকারী ভবনে মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের অবমাননাকর ব্যঙ্গ কার্টুণ প্রদর্শণ একই সূত্রে গাঁথা। ফ্রান্সের এ ইসলাম বিদ্বেষ ও মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের অবমাননায় বিশ্বের দুইশত কোটি মুসলমান ব্যথিত ও ক্ষুব্ধ। ফ্রান্স এহেন জঘন্য কর্মকান্ড বন্ধ করতে বাধ্য করতে হবে। রাষ্ট্রীয়ভাবে ফ্রান্সে ইসলাম ও মহানবী  সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের অবমাননার প্রতিবাদ করতে হবে। বিক্ষুব্ধ মুসলমানদের হৃদয়ের ক্ষত মুছতে হলে ফ্রান্সকে রাষ্ট্রীয়ভাবে ক্ষমা চাইতে হবে। তা না হলে সারা দুনিয়ার মুসলমানরা রাজপথে নেমে আসবে। ইতোমধ্যেই ফ্রান্সের পণ্য বয়কট শুরু হয়েছে এ বর্জন আরো তীব্র হবে। ইসলাম ও মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের অবমাননা কোনভাবেই একজন মুসলমানের পক্ষে বরদাস্ত করা সম্ভব নয়।

সমমনা ইসলামী দলসমূহের নেতারা বলেন, রাষ্ট্রীয়ভাবে ফ্রান্সে মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ও ইসলামের অবমাননার প্রতিবাদে বাংলাদেশের তাওহিদী জনতার পক্ষে সমসমনা দলসমূহের পক্ষ থেকে অচিরেই কঠিন আন্দোলনের কর্মসূচী ঘোষনা করা হবে।

বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় ফ্রান্সের মন্টোপলিস ও ত্বলুসে শহরের দু’টি সরকারী ভবনে মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ব্যঙ্গ কার্টুণ প্রদর্শণের বিরুদ্ধে বাংলাদেশসহ মুসলিম বিশ্বকে রাষ্ট্রীয়ভাবে ফ্রান্সের সরকারের কাছে প্রতিবাদলিপি প্রেরণের দাবী জানান এবং বিশ্ব মুসলিমকে এসব ইসলাম বিদ্বেষী অপতৎপরতার বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জাননা।

বিবৃতি প্রদানকারীগণ হলেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ-এর মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের প্রধান আমীর আল্লামা শাহ আতাউল্লাহ ইবনে হাফিজ্জী, ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের আমির ড. মোহাম্মদ ঈশা সাহেদী, খেলাফত মজলিসের মহাসচিব ড. আহমদ আব্দুল কাদের, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক, বাংলাদেশ মুসলিম লীগের মহাসচিব কাজী আবুল খায়ের, বাংলাদেশ ফরায়েজী আন্দোলনের সভাপতি মাওলানা আবদুল্লাহ মুহাম্মদ হাসান।

spot_imgspot_img

আরও