বৃহস্পতিবার, জুন ৩০, ২০২২

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫; আহত ৩০

ভারতের হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকারের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে শুক্রবার বাদ জুম’আ জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকররম ও হাটহাজারীতে আন্দোলনরত ছাত্র, মুসল্লীদের উপর পুলিশ-সরকারদলীয় নেতাকর্মীদের বর্বরোচিত হত্যা এবং হামলার প্রতিবাদে আন্দোলন করায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজত সমর্থকদের ওপর হামলা চালিয়েছে আওয়ামী লীগ। এ ঘটনায় ৫ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়াও এ হামলায় অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন।

শনিবার (২৭ মার্চ) রাত ৮টার দিকে সদর উপজেলার নন্দনপুরে এ ঘটনা ঘটে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যার হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক আব্দুল্লাহ আল মামুন সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত হওয়ার বিষয়টি সংবাদমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, হেফাজত কর্মীদের সাথে আওয়ামী লীগ, পুলিশ ও বিজিবির সংঘর্ষ বাধে। এতে ৫জন নিহত ও ৩০জন আহন হন। আহতদের মধ্যে অনেকেই গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলেও জানিয়েছন তারা।

ভারতের হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকারের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে গতকাল শুক্রবার জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকররম, হাটহাজারীতে তৌহিদি জনতার বিক্ষোভে পুলিশ, যুবলীগ-ছাত্রলীগের হামলায় নেতাকর্মী নিহত ও আহত হওয়ার প্রতিবাদে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় একই দিন দুপুর আড়াইটায় শহরের প্রধান সড়ক টিএ রোডে মাদরাসার শিক্ষার্থী ও তাওহিদী জনতা ব্যাপক বিক্ষোভ প্রদর্শন করে।

এসময় পুলিশি হামলায় শহরের দাতিয়ারা এলাকার সাগর মিয়ার ছেলে মুহাম্মাদ আশিক (২০) নামের এক তরুণ ইন্তেকাল করেন।

এ ঘটনায় প্রধান সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে। বিক্ষুব্ধরা সড়কের বিভিন্ন স্থানে টায়ার পুড়িয়ে বিক্ষোভ করতে থাকে।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img