শনিবার, এপ্রিল ২০, ২০২৪

গাজ্জায় বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে ইসরাইলি বাহিনী, দেখা দিয়েছে সরঞ্জামের অভাব; সত্য প্রকাশ করলেন ইসরাইলি মেজর

অবরুদ্ধ গাজ্জা উপত্যকায় চলমান যুদ্ধে প্রয়োজনীয় লজিস্টিক সহায়তা পাচ্ছেনা ইহুদিবাদী সন্ত্রাসীদের অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের সেনাবাহিনী। যে কারণে ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের বিরুদ্ধে সামনে এগোতে বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে তারা। এমনটিই জানিয়েছেন ইসরাইলের অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল ইৎজাক ব্রিক।

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) ইসরাইলের দৈনিক সংবাদমাধ্যম ‘মারিভ’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন তিনি। পাশাপাশি এসব সত্য প্রকাশ করেছেনা মিডিয়াগুলো বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

ব্রিক বলেন, “সামনে অগ্রসর হওয়ার জন্য খাদ্য, সরঞ্জাম, লজিস্টিক সহায়তাসহ যা যা দরকার তার কোন কিছুই ঠিকঠাক পাওয়া যাচ্ছে না গাজ্জায়। কারণ এসকল কিছুর দায়িত্ব প্রাইভেট কোম্পানিগুলোর কাছে অর্পণ করেছে ইসরাইলি সেনাবাহিনী।”

তিনি বলেন, “গাজ্জায় একের পর এক ট্যাংক বিধ্বস্ত হচ্ছে। কিন্তু তাৎক্ষণিকভাবে এগুলো মেরামতের জন্য কেউ নেই। তেল আবিবে ফেরত নিয়ে আসার অপেক্ষায় ডজন ডজন ট্যাংক সেখানে পড়ে রয়েছে।”

তিনি আরো বলেন, এসব সত্য প্রকাশ করেছেনা ইসরাইলি মিডিয়া। পাশাপাশি হামাসের সাথে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে ৬ বার সাক্ষাৎ করেছেন বলেও জানান তিনি।

এসব সাক্ষাতে নেতানিয়াহুকে তিনি বলেছেন, “আমাদের কাছে যে সৈনিকরা রয়েছে তারা গত পাঁচ বছর ধরে প্রশিক্ষণ নেয়নি। শুধু তাই নয়, যুদ্ধ সরঞ্জামেরও অভাব রয়েছে আমাদের।”

উল্লেখ্য, গত ২৭ অক্টোবর গাজ্জায় স্থল অভিযান শুরুর পর থেকে মোট ২৩৭ জন ইসরাইলি সৈন্য নিহত হয়েছে।

সূত্র: মিডল ইস্ট মনিটর

spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_img
spot_img
spot_img