রবিবার, মে ১৯, ২০২৪

রাস্তায় পড়ে থাকা ১০ লাখ টাকার স্বর্ণালংকার মালিককে ফিরিয়ে দিলেন অটোরিকশাচালক

রাস্তায় পরে থাকা একটি ভ্যানিটি ব্যাগে প্রায় ১০ লাখ টাকার স্বর্ণালংকার পেয়েও মালিককে ফিরিয়ে দিলেন ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার মো. মহিউদ্দিন নামের এক অটোরিকশাচালক।

মহিউদ্দিন চরফ্যাশন উপজেলার আছলামপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের খোদেজাবাগ গ্রামের বাসিন্দা।

বৃহস্পতিবার রাতে আছলামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান একেএম সিরাজুল ইসলামের ব্যক্তিগত কার্যালয়ে স্বর্ণালংকারের মালিক আয়েশা বেগমের নিকট হস্তান্তর করা হয়। এ সময় আয়েশা বেগম অটোরিকশার চালক মহিউদ্দিনের হাতে সততার পুরস্কার হিসেবে নগদ ৫০ হাজার টাকা তুলে দেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঈদের দিন বুধবার বিকালে আয়েশা বেগম স্বামীর বাড়ি লালমোহন উপজেলার রমাগঞ্জ থেকে অটোরিকশাযোগে বাবার বাড়ি চরফ্যাশন উপজেলার শশিভূষণ এলাকায় যাচ্ছিলেন। এ সময় আছলামপুর ইউনিয়নের ভুঁইয়ার হাটের দক্ষিণ পাশে আসলে সাত ভরি স্বর্ণালংকার, মোবাইল ও দামি মালামালসহ সঙ্গে থাকা ভ্যানিটি ব্যাগটি বোরাক থেকে নিজের অজান্তেই রাস্তায় পরে যায়। সেখান দিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় অটোরিকশা চালক মো. মহিউদ্দিন ব্যাগটি রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখে তুলে নিজের কাছে রেখে দেয়।

পরে ব্যাগের মালিক ব্যাগটি অনেক খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে ওই এলাকায় মাইকিং করে ব্যাগের সন্ধান দাতাকে ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার দেওয়ার ঘোষণা দেন। এ অবস্থায় রাত ১০টার দিকে মহিউদ্দিন ব্যাগের মধ্যে স্বর্ণালংকারসহ দামি মালামাল থাকা সত্ত্বেও ব্যাগটি স্থানীয় চেয়ারম্যান এ কে এম সিরাজুল ইসলামের কাছে জমা দেন।

চেয়ারম্যান বিষয়টি রমাগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যানকে জানালে সে লোক পাঠিয়ে ব্যাগের মালিক আয়েশা বেগমকে ব্যাগের সন্ধান নিশ্চিত করেন। পরে বৃহস্পতিবার রাতে এসে আয়েশা বেগম আছলামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে উপযুক্ত প্রমাণ দিয়ে ব্যাগটি বুঝে নেয়। খুশি হয়ে অটোরিকশার চালক মহিউদ্দিনকে নগদ ৫০ হাজার টাকা পুরষ্কার প্রদান করেন।

spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_img
spot_img