মঙ্গলবার, জুন ২৮, ২০২২

সরকার পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী উৎসব নিয়ে ব্যস্ত: মির্জা ফখরুল

বন্যাদুর্গত মানুষের দিকে না তাকিয়ে ‘সরকার পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী উৎসব নিয়ে ব্যস্ত’ বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শনিবার (১৮ জুন) দুপুরে রাজধানীর ভাটারায় ঢাকা উত্তরের কয়েকটি ওয়ার্ড সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব এ অভিযোগ করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা মনে করি এই দুঃসময়ে এই দুযোর্গের সময়ে, জনগণের এই কষ্টের সময়ে সরকার ব্যস্ত হয়ে আছে উৎসব নিয়ে। তারা পদ্মা সেতুর উদ্বোধন নিয়ে এত ব্যস্ত যে, তারা মানুষের কল্যাণের দিকে তাকানোর কোনো সময় নেই, মানুষের কষ্টের দিকে তাকানোর সময় নেই। আমরা দাবি করছি, বন্যা কবলিত অঞ্চলগুলোকে দুর্গত অঞ্চল হিসেবে ঘোষণা করা হোক এবং এসব অঞ্চলের জনগণের জন্য ত্রাণের ব্যবস্থা করা হোক কোনো বিলম্ব না করে। আমরা অবিলম্বে সরকারকে বন্যা কবলিত এলাকায় গিয়ে দুর্গত মানুষের জন্য ত্রাণের ব্যবস্থা করে এবং বন্যা যেন না হয় তার ব্যবস্থা করা জন্য আহবান জানাচ্ছি।

বন্যা পরিস্থিতির চিত্র তুলে ধরে মির্জা ফখরুল বলেন, সারা দেশে আজকে বন্যার ধারালো ছোবল। সিলেট, সুনামগঞ্জ থেকে শুরু করে উত্তরে লালমনিরহাট, কুড়িগ্রামসহ সব অঞ্চল বন্যার পানিতে ডুবে গেছে। গতকালের যে নিউজ সেই নিউজ হচ্ছে ফারাক্কার সব বাঁধ খুলে দেওয়া হয়েছে এবং ফারাক্কা বাঁধ দিয়ে পদ্মা-মেঘনা-যমুনা সব নদীর পানি এখন বাড়তে থাকবে। এদেশের মানুষকে ভাসিয়ে দেবে, তাদের বহুদিনের যে কষ্ট করা যে ফসল সেই ফলসকে নষ্ট করবে, তাদের বাড়ি-ঘর নষ্ট করবে, তাদের গবাদিপশু নষ্ট করবে, তাদের সব সম্পদ ভাসিয়ে নিয়ে চলে যাবে।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, এখন তারা (সরকার) নতুন একটা গান শুরু করেছে। সেই গানটা কী? যে বাংলাদেশে এই যে পদ্মা ব্রিজের উদ্বোধন হবে সেখানে নাকি একটা বড় দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা রয়েছে। জাতির সামনে বলেন সেই দুর্ঘটনাটি, কারা করছে- পরিষ্কার করে বলেন। আমরা দেখছি যে, বরাবরই আপনারা এসব কথা বলেন। নিজেরা দুর্ঘটনা ঘটান তারপরে এটা বিএনপির ওপরে চাপিয়ে দেন। এটা হচ্ছে আপনাদের চরিত্র, এটা আপনাদের নীতি।

সুইস ব্যাংকের টাকা কাদের প্রশ্ন করে তিনি বলেন, পত্রিকায় এসেছে, সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের টাকার পরিমাণ গত এক বছরে তিনগুণ বেড়েছে। অর্থাৎ যারা চুরি করছেন, যারা লুট করছেন তারা পাচার করে সুইস ব্যাংকে টাকা পাঠিয়ে দিচ্ছেন। এভাবে তারা কানাডায় বেগমপাড়া তৈরি করেছেন, মালয়েশিয়ায় সেকেন্ড হোম তৈরি করেছেন এবং এই দেশে তারা কোনো বাধা-বিপত্তি ছাড়াই, কোনো জবাবদিহিতা ছাড়াই চরমভাবে প্রত্যেকটা খাতে দুর্নীতি করছে। একটা সংসদ আছে। এই সংসদ নির্বাচিত সংসদ নয়। সে কারণে সেখানে সরকারের সমালোচনা হয় না এবং সেখানে যেহেতু বিরোধী দল বলতে কিছুই নেই সেজন্য এই জবাবদিহিতার কাজটা তারা করতে পারে না।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img