বিশ্বজুড়ে পণ্য বর্জন: ফ্রান্সের কাকুতি-মিনতি

মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাই ওয়াসাল্লামকে নিয়ে কটূক্তি ও ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে বিশ্বজুড়ে ফ্রান্সের পণ্য বর্জনের ডাক দেওয়া হয়েছে। এমন অবস্থায় বিপাকে পড়েছে দেশটি।

ইতিমধ্যে আরব দেশগুলোর প্রতি ফরাসি পণ্য বর্জন বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে ফ্রান্স।

রবিবার ফরাসি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানানো হয়। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সম্প্রতি মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি দেশে ফরাসি পণ্য, বিশেষত খাদ্যপণ্য বয়কটের আহ্বান জানানো হয়েছে। এর পাশাপাশি মহানবী (সা.)-এর ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন প্রকাশের বিষয়ে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শনের আহ্বান জানানো হয়েছে। বয়কটের এসব আহ্বান ভিত্তিহীন। অবিলম্বে এসব বন্ধ হওয়া উচিত। একটি উগ্র সংখ্যালঘু গোষ্ঠী আমাদের দেশের বিরুদ্ধে যেসব হামলা চালিয়ে যাচ্ছে; তা বন্ধ হওয়া উচিত।

বিভিন্ন দেশে জনগণকে ফরাসি পণ্য চিহ্নিত করার উপায় বাতলে দিচ্ছেন সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাক্টিভিস্টরা। বর্জনের ডাকে সাড়া দিয়ে ইতোমধ্যেই কাতার ও কুয়েতের বিভিন্ন মার্কেটের সেলফ থেকে ফরাসি পণ্য সরিয়ে ফেলা হয়েছে। ফরাসি পণ্য বর্জনের দাবিতে টুইটার হ্যাশট্যাগ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে সৌদি আরবসহ এ অঞ্চলের অন্যান্য দেশেও। এমন পরিস্থিতিতে রবিবার আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দিয়ে ফরাসি পণ্য বর্জন বন্ধের আহ্বান জানালো ফ্রান্স।

সম্প্রতি মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাই ওয়াসাল্লামকে নিয়ে ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন প্রকাশ করে স্যামুয়েল প্যাতি নামে এক ফরাসি শিক্ষক। এর পর নিজ মুসলিম ছাত্রের হাতে নিহত হয় সে। এ ঘটনার পর ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইসলামকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের উৎস বলে মন্তব্য করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *