মঙ্গলবার, জুন ২৮, ২০২২

হামাসের পুনরায় আগুনে রকেট হামলার হুমকি; উসকানিমূলক পতাকা মিছিল বাতিল ইসরাইলের

ইনসাফ | নাহিয়ান হাসান


দখলকৃত ফিলিস্তিনের পূর্ব জেরুসালেমে মুসলিম অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে চরম উগ্র ইহুদিবাদী ইসরাইলীরা তাদের উসকানিমূলক পতাকা মিছিল বাতিল করতে বাধ্য হয়েছে।

চরম উগ্র ইহুদিবাদীদের নিরাপত্তার স্বার্থে ইহুদিবাদী ইসরাইলের নিরাপত্তা বিভাগ পূর্ব জেরুসালেমের মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় পতাকা মিছিলের অনুমতি দেয়নি বলে জানা যায়।

অপরদিকে উসকানিমূলক পতাকা র‍্যালি বাতিলের সিদ্ধান্তকে ইসরাইলের নতুন পরাজয় আখ্যায়িত করে তার সাধুবাদ জানায় ফিলিস্তিন ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস।

এর আগে দলটির রাজনৈতিক শাখার উপপ্রধান খলিল হাইয়া ইহুদিবাদী ইসরাইল ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে পতাকা র‍্যালি আয়োজনের ব্যাপারে সতর্ক করেছিলেন বলে জানা যায়।

তিনি বলেছিলেন, মিছিলটি যদি পবিত্র আকসা এবং কুদসের আশপাশে এসে যায় তবে তা ১১ মের মতো পুনরায় আগুনে রকেট হামলার উৎপত্তি ঘটাবে।

১৯৬৭ সনে ইহুদিবাদী সন্ত্রাসী বাহিনী কর্তৃক পূর্ব জেরুসালেম দখলের ঘটনার স্মরণে প্রতিবছর চরম উগ্র ইহুদিবাদী ইসরাইলীরা ওই অঞ্চলের মুসলিম অধ্যুষিত এলাকা দিয়ে উসকানিমূলক পতাকা মিছিল করে থাকে।

মিছিলে তারা ‘আরবদের মৃত্যু হোক’ বলে জোরে জোরে স্লোগান দিতে থাকে। অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের পতাকা উড়াতে উড়াতে বর্ণবাদী ও চরম আপত্তিকর গান গেয়ে ফিলিস্তিনি মুসলিমদের সারাদিন উসকানি দিতে থাকে।

জেরুসালেম ডে নামক নিজেদের অবৈধ দখলদারিত্বের স্মরণে উসকানিমূলক পতাকা মিছিলটি যদিও গত মাসে হওয়ার কথা ছিলো কিন্তু শেখ জাররাহ ও পবিত্র আল আকসার ঘটনায় ফিলিস্তিন ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের পাল্টা আক্রমণের হুমকি এবং রকেট হামলায় তা পিছিয়ে দিতে বাধ্য হয়েছিলো ইহুদিবাদী সন্ত্রাসী রাষ্ট্র ইসরাইল।

পতাকা মিছিলের আয়োজকেরা জানায়, দুঃখজনকভাবে তাদের আগামী বৃহস্পতিবারের পতাকা মিছিলটি বাতিল করতে হচ্ছে। কেননা নিরাপত্তা জনিত কারণে নিরাপত্তা কর্তৃপক্ষ তাদেরকে মুসলিম অধ্যুষিত এলাকা দিয়ে যাতায়াতের অনুমতি দেয়নি।

অপরদিকে অবৈধ রাষ্ট্রটির পুলিশ বিভাগ বলছে উত্তেজনা পুনরায় মাথাচাড়া দিয়ে উঠার আশঙ্কায় পতাকা মিছিল বা র‍্যালিটির রুট পরিবর্তন করা দরকার।

ইসরাইলী দৈনিক হারেটজের তথ্যমতে, দেশটির পুলিশ কর্তৃপক্ষ পতাকা মিছিলের সম্ভাব্য পরিস্থিতি নিয়ে একটি মিটিং করে, যেখানে তাদের গোয়েন্দা বিভাগ সাম্প্রতিক হামাসের রকেট হামলার সাথে পূর্ব জেরুসালেমে ইসরাইলীদের পতাকা র‍্যালির সম্পৃক্ততা প্রতিবেদন আকারে তুলে ধরে এবং পুনরায় পতাকা মিছিল, ওল্ড সিটি-আল আকসায় হামলা কিংবা ধরপাকড়, ফিলিস্তিনি উৎখাত হলে পুনরায় হামাসের রকেট হামলা শুরু হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করে।

পতাকা মিছিলের অনুমতি না দেওয়ার পিছনে দেশটির রাজনৈতিক নেতাদেরও সমর্থন রয়েছে উল্লেখ করে ইসরাইলী পুলিশ জানায়, আয়োজকদের অবশ্যই র‍্যালির বর্তমান রুট কিংবা তারিখের বিকল্প খুঁজে বের করতে হবে। তারপর তা যাচাই করে দেখা হবে।

তাছাড়া ইহুদিবাদী ইসরাইলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী গত শনিবার দেশটির প্রতিরক্ষা বিভাগের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক শেষে এক বিবৃতিতে বলেছিলেন, পতাকা মিছিলের জন্য যদি অতিমাত্রায় বিশেষ নিরাপত্তার প্রয়োজন হয় কিংবা শান্তিশৃঙ্খলা ও কূটনৈতিক তৎপরতার ব্যাঘাত ঘটে তবে তা বাতিল করে দেওয়া হবে।

পতাকা র‍্যালির আয়োজকদের পক্ষ থেকে চরম উগ্র ইহুদিবাদী দল নেটসের একজন সদস্য বেজালেল স্মোরিচ তার টুইট বার্তায় ওই বিবৃতির নিন্দা জানিয়ে তৎক্ষনাৎ বলেছিলেন, আমরা ২০০০ বছর যাবত ইহুদিবাদী স্বাধীন-সার্বভৌম রাষ্ট্রের জন্য একারণে অপেক্ষা করিনি যে, কোনো কাপুরুষ প্রতিরক্ষামন্ত্রী হামাসের কাছে মাথা নোয়াবে এবং পবিত্র শহর ও রাজধানী জেরুজালেমে ইহুদিবাদীদের পতাকা র‍্যালিতে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করবে।

এসময় তিনি পতাকা র‍্যালি সফল করতে যথাসময়ে তা আয়োজনের ঘোষণা করতে
ইহুদিবাদী সন্ত্রাসী রাষ্ট্রের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে অনুরোধ জানান।

সূত্র: মিডল ইস্ট মনিটর।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img