রবিবার, নভেম্বর ২৮, ২০২১

ফেসবুক, টুইটারের উপর আরোপিত হতে যাচ্ছে কঠোর আইন; হতে পারে ২৪ মিলিয়ন ডলারে বেশি জরিমানা

ইনসাফ | নাহিয়ান হাসান


ব্রিটেনে, সোশ্যাল মিডিয়াগুলোতে অবৈধ কন্টেন্ট অপসারণ ও তার বিস্তার রোধে কঠোর আইন প্রণয়নের প্রস্তাব উত্থাপিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৫ ডিসেম্বর) ব্রিটেনের শিশুদের পর্নোগ্রাফি, সাইবার বুলিং এবং গ্রুমিং থেকে রক্ষায় সোশ্যাল মিডিয়া সংক্রান্ত কঠোর আইন প্রণয়নের প্রস্তাবনা উত্থাপন সম্পর্কে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে ব্রিটেনের প্রশাসন।

বিবৃতিতে বলা হয়, শিশুদের পর্নোগ্রাফি, সাইবার বুলিং এবং গ্রুমিং থেকে রক্ষায় টেক প্লাটফর্ম বা সোশ্যাল মিডিয়াগুলোকে আরো বেশি কিছু করতে হবে।

তাছাড়া, প্রস্তাবিত ব্রিটিশ আইন অনুযায়ী ফেসবুক, টুইটার এবং চীনা টিকটক কোম্পানি যদি অবৈধ কোনো কন্টেন্ট অপসারণ কিংবা তা বিস্তার রোধে ব্যর্থ হয়, তবে তাদেরকে তাদের বিশ্বজুড়ে ব্যবসার ১০ শতাংশেরও বেশি অর্থ জরিমানা করা হতে পারে।

ব্রিটেনের ডিজিটাল খাতের মন্ত্রী অলিভার ডাউডেন এই ব্যাপারে বলেন, শিশু ও সংবেদনশীল সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীদের রক্ষায় আমরা দায়বদ্ধতার নতুন যুগে প্রবেশ করতে যাচ্ছি। যাতে করে ডিজিটাল খাত ফিরে পায় মানুষের আস্থা এবং বাকস্বাধীনতা আশ্রিত হয় আইনের সুরক্ষা বলয়ে।

তিনি আরো বলেন, ব্রিটেনের নতুন এই ডিজিটাল আইন যা সামনের বছর থেকে কার্যকর হবে তা মাথাব্যথার কারণ হবে ওই সমস্ত সাইটের এবং সিনিয়র কর্মকর্তাদের, যারা সাইট ব্লক হয়ে যাওয়ায় আইন ভঙ্গ করছে এবং যারা অবৈধ-বিপজ্জনক কন্টেন্টের জন্য দায়ী।

যে সমস্ত পণ্য বা বিষয়াদি অবৈধ নয় সেই সম্পর্কে জনপ্রিয় ডিজিটাল প্লাটফর্মগুলোর সুস্পষ্ট নীতিমালা থাকতে হবে উল্লেখ করে অলিভার ডাউডেন বলেন, এই ধরনের নীতিমালা যদিও কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন সম্বন্ধে ভুল তথ্য প্রচারের মতো অন্যান্য জঘন্য কাজের জন্যেও ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াবে, কিন্তু তবুও এই ধরনের কাঠামো, ডিজিটাল খাতের বিশাল বাণিজ্যে কঠোর নিয়মকে অনুসরণীয় করে তুলে।

অপরদিকে ব্রিটিশ সরকারের সাথে ডিজিটাল নিরাপত্তা সম্পর্কিত বিধিবিধান নিয়ে কাজ করার কথা উল্লেখ করে সোশ্যাল জায়ান্ট ফেসবুক এবং সার্চইঞ্জিন গুগল বলেছে, তারা ডিজিটাল নিরাপত্তার বিষয়টিকে খুবই গুরুত্বের সাথে নিয়েছে এবং সেই বিষয়টি সমাধানে তারা ইতিমধ্যেই নিজেদের পলিসি এবং কর্মপন্থায় পরিবর্তন এনেছে।

ম্যানেজিং ডিরেক্টর অফ ইউটিউব ইউকে বেন ম্যাকাওয়েন উইলসন এই ব্যাপারে বলেন, আমাদের ব্যবহারকারী গ্রাহক ও কন্টেন্ট নির্মাতারাই আমাদের কাছে অগ্রাধিকার পেয়ে থাকেন। তাই আমরা আইন কার্যকর হওয়ার অপেক্ষা করিনি। বরং, ইন্ডাস্ট্রি, কমিউনিটি গ্রুপ এবং সরকার পক্ষের সাথে আলোচনার মাধ্যমে ক্ষতিকর কন্টেন্ট সরিয়ে ফেলতে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।

চীনের বাইটড্যান্স কোম্পানির মালিকানাধীন দ্রুত বর্ধনশীল ভিডিও শেয়ারিং এর প্লাটফর্ম টিকটক এই বিষয়ে বলেছে, সরকার পক্ষের সাথে কাজ করে অনলাইন নিরাপত্তাকে আরো দৃঢ় করতে ব্রিটিশ সরকারের দেওয়া প্রস্তাবনাগুলো তারা পর্যালোচনা করে দেখছে।

ব্রিটিশ নতুন ডিজিটাল আইনের অধীনে ব্রিটিশ মিডিয়া নিয়ন্ত্রণ সংস্থা অফকমকে বিভিন্ন ডিজিটাল কোম্পানিকে জরিমানা করার ক্ষমতা দেওয়া হবে। এতে করে তারা বিভিন্ন কোম্পানিকে ১৮ মিলিয়ন পাউন্ড (২৪ মিলিয়ন ডলার) কিংবা ডিজিটাল কোম্পানিগুলোর বিশ্বজুড়ে ব্যবসার ১০ শতাংশেরও বেশি অর্থ জরিমানা করতে পারবে।

এছাড়াও নতুন সেই ডিজিটাল আইনের ক্ষমতা দানের ফলে ব্রিটিশ মিডিয়া নিয়ন্ত্রণ সংস্থাটি ওই সমস্ত ডিজিটাল পরিষেবাগুলোকে ব্রিটেনে প্রবেশে বাধাও দিতে পারবে।

উল্লেখ্য, স্বাধীন মত প্রকাশ বা বাকস্বাধীনতা চর্চার লক্ষে অনলাইন ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ও তার পাঠকদের মন্তব্য এই আইনের আওতামুক্ত থাকবে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ ডিজিটাল খাত বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

সূত্র: আল জাজিরা

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img