মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২৫, ২০২২

ইউরোপের অনেক দেশের আগেই তুরস্ক নারীদের ভোটের অধিকার দিয়েছে : এরদোগান

ইউরোপের অনেক দেশের আগেই তুরস্ক নারীদের ভোট দেয়ার ও নির্বাচনে অংশ নেয়ার অধিকার দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান।

তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেন, ইউরোপের অনেক দেশের আগেই তুরস্কে নারীদের ভোটাধিকারের মর্যাদা দান ‘গুরুত্বপূর্ণ সূচক’ যা তুর্কি জাতির নারীদের প্রতি দৃষ্টিভঙ্গিকে প্রকাশ করেছে।

রোববার তুর্কি নারীর ভোটাধিকার লাভের ৮৭তম বার্ষিকী উপলক্ষে এক ভিডিও বার্তায় এই কথা বলেন তিনি।

১৯৩৪ সালের ৫ ডিসেম্বর এক আইনের মাধ্যমে তুরস্কে নারীদের ভোট দেয়ার ও নির্বাচনে অংশ নেয়ার অধিকার দেয়া হয়।

তিনি বলেন, ‘যদিও ১৯৩৪ সালে আমাদের নারীরা ভোট দান ও নির্বাচিত হওয়ার অধিকার অর্জন করেন, কিন্তু জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টির (একে পার্টি) অধীনেই তারা প্রথম মুক্তভাবে এই অধিকার চর্চার সুযোগ পান।’

২০০২ সালে একে পার্টির ক্ষমতায় আসার আগে রাষ্ট্রীয় আইনের অনুসারে পর্দা পালন করা নারীরা নির্বাচিত হওয়ার সুযোগ পেতেন না। একে পার্টি ক্ষমতায় আসার পর রাষ্ট্রীয় এই আইন পরিবর্তন করা হয়।

ভিডিও বার্তায় এরদোগান বলেন, ‘আল্লাহর অনুগ্রহে আমরা সামনের দিনগুলোতে আমাদের নারীদের বিষয়ক সমস্যা বিশেষ করে নারীদের বিরুদ্ধে সহিংসতার সমস্যার সমাধান করবো।’

সূত্র : আনাদোলু এজেন্সি

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img