রবিবার, আগস্ট ১, ২০২১

আবারও মেয়েসহ কাশ্মীরের মেহবুবা মুফতিতে বন্দি করেছে হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকার

২০১৯ সালের আগস্টে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের সময় গৃহবন্দি হওয়ার ১৪ মাস পর গত ১৩ অক্টোবর মুক্তি পেলেও কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতিকে মেয়েসহ আবার গৃহবন্দি করেছে ভারতের উগ্র হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকার।

শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) ভারত দখলকৃত কাশ্মীর উপত্যকার প্রথম নারী মুখ্যমন্ত্রী ও পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টির (পিডিপি) নেত্রী মেহবুবা মুফতি নিজে টুইট করে মেয়েসহ ভারতীয় কর্তৃপক্ষের হাতে গৃহবন্দি হওয়ার খবর জানিয়েছেন।

স্থানীয় একটি নির্বাচনের আগে সম্প্রতি পিডিপি নেতা ওয়াহিদ পারাকে গ্রেফতার করে ভারতের জাতীয় তদন্ত সংস্থা এনআইএ। তার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে চাওয়াতে ফের বন্দি হয়েছেন বলে অভিযোগ মেহবুবার।

মেহবুবা মুফতি ওই টুইট বার্তায় লিখেছেন, ফের বেআইনিভাবে আটক করা হয়েছে আমাকে। গত দুদিন ধরে পুলওয়ামায় ওয়াহিদের পরিবারের সঙ্গে আমাদের দেখা করার অনুমতি দিচ্ছিল না প্রশাসন।

বিজেপির মন্ত্রী এবং তাদের অনুচরদের কাশ্মীরে অবাধ বিচরণের অনুমতি থাকলেও শুধু তাদেরকে নিরাপত্তার দোহাই দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মেহবুবা মুফতি।

তিনি জানান, ভিত্তিহীন অভিযোগে গ্রেফতার ওয়াহিদের পরিবারকে সমবেদনা জানানোর অধিকারটুকুও নেই আমাদের। তার পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছিল বলে আমার মেয়ে ইলতিজাকেও গৃহবন্দি করা হয়েছে।

তবে এখন তাদেরকে কোথায় রাখা হয়েছে, এ বিষয়ে কিছুই খোলসা করেননি মেহবুবা মুফতি। জেলা পরিষদের নির্বাচন ঘিরে কাশ্মীরে প্রস্তুতি যখন তুঙ্গে, ঠিক সেই সময় বুধবার ওয়াহিদ পারাকে গ্রেফতার করে এনআইএ।

পুলওয়ামা থেকে জেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়ন জমা দেয়া ওয়াহিদ পারাকে স্বাধীনতাকামীদের সাথে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ তুলে গ্রেফতার করা হলেও কাশ্মীরের হিন্দুত্ববাদী বিজেপিবিরোধী রাজনৈতিক শিবির এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে।

- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ