ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদে চাকরি, ৬ পুলিশ সদস্য কারাগারে

ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদে চাকরি নেওয়ার মামলায় ৬ পুলিশ সদস্যকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

বৃহস্পতিবার (০৫ নভেম্বর) দুপুরে রংপুর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বিচারক শওকত আলীর আদালত তাদের জামিন না মঞ্জুর করেন।

রংপুর আদালতের মেট্রোপলিটন কোর্ট ইন্সপেক্টর নাজমুল কাদির জানান, পুলিশের চাকরি হওয়ার পর মুক্তিযোদ্ধার সনদ যাচাই করে সন্দেহ হলে ৬ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ২০১৯ সালে কোতোয়ালী থানায় দুটি পৃথক মামলা করে পুলিশ।

ওই পুলিশ সদস্যরা হলেন- রংপুরের তারাগঞ্জের নেকিরহাটের নছির উদ্দিনের ছেলে কনস্টেবল মনোয়ার হোসেন (২৬), একই উপজেলা খারুয়াবা ভেটুপাড়ার আশিকুর রহমানের ছেলে মাহবুব আলম ওরফে মিনারুল (২৪), সদর থানার মমিনপুরের মহিষপুরের মোস্তাফিজার রহমান (২৩), পীরগঞ্জের শানেরহাটের প্রথম ডাঙ্গার খলিলুরের রহমানের ছেলে নুরন্নবী মিয়া (২৩) এবং সদরের মমিনপুরের খারুয়া বাধার আজহারুল ইসলামের ছেলে শফিউজ্জামান বিপ্লব (২৬) ও সদরের পালিচড়ার মোশাররফ হোসেনের ছেলে মাহবুব আলম। তাদের রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

এসব পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদ দিয়ে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় পুলিশ কনস্টেবল হিসেবে চাকরি নেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে।

আসামি পক্ষের আইনজীবী আব্দুর রাজ্জাক জানিয়েছেন, তারা চার্জশিট পর্যন্ত হাইকোর্টে জামিনে ছিলেন। আজ চার্জশিট আসার পর তাদের আদালতে হাজির করে জামিন চাওয়া হয়। আদালত জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *