সেনাবাহিনীর উপর আস্থা নেই; জনগণকে অস্ত্র নিতে বলল আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী

সেপ্টেম্বর মাসের ২৭ তারিখ থেকে নাগার্নো-কারাবাখ নিয়ে আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার মধ্যে নতুন করে শুরু যুদ্ধ শুরু হয়েছে। এর মধ্যেই আর্মেনিয়ার দখল করা নিজেদের অঞ্চল একের পর এক নিয়ন্ত্রনে নিয়ে পতাকা উড়াচ্ছে আজারবাইজানের সেনাবাহিনী। তাদের প্রতিরোধের মুখে দাঁড়াতে পারছে না আর্মেনিয়া। অবশেষে সেনাদের উপর আস্থা হারিয়ে উপায়ান্তর না পেয়ে জনগণকে আজারবাইজানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে নির্দেশ দিল আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী নিকোল পাশিনইয়ান।

এক ভিডিও বিবৃতিতে দেশবাসীর কাছে এই আবেদন জানান তিনি।

ভিডিও বিবৃতিতে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে নিকোল পাশিনইয়ান বলেন, কূটনৈতিক আলোচনায় সমাধান সূত্র মিলবে না। এই সংকটকালে সকলে হাতে অস্ত্র তুলে নিন এবং দেশের জন্য লড়াই করুন। সকলে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হোন। হাতে অস্ত্র তুলে নিন। আর্মেনিয়াকে রক্ষা করুন।

সামরিক ও কূটনৈতিকভাবে দেশটির জন্য চরম হতাশাজনক এই পরিস্থিতিতে তেহরানের কাছেও বার্তা পাঠিয়েছেন আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী। সেখানে তার বক্তব্য, তেহরান যদি শান্তিপূর্ণ সমাধানের রাস্তা তৈরি করতে পারে, তা হলে আর্মেনিয়া তা মেনে নেবে। বস্তুত, আর্মেনিয়া ব্রাসেলসেও প্রতিনিধি পাঠিয়েছে। ন্যাটো এবং ইইউ-র সঙ্গে আলোচনা করবে সেই প্রতিনিধি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *