রবিবার, আগস্ট ১, ২০২১

সিরিজ মামলার আবেদন ইসলাম ও দেশ বিরোধী চক্রান্তের অংশ : মুফতী ফয়জুল করীম

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতী ফয়জুল করীম বলেছেন, ভাস্কর্যের বিষয়ে ইসলামের দৃষ্টিতে মতামত ও দাবী তুলে ধরার মৌলিক ও মানবাধিকার থেকে দেয়া বক্তব্যকে কেন্দ্র করে আমিসহ তিনজনের বিরুদ্ধে যেভাবে একের পরে এক মামলা দায়ের করা হচ্ছে; তা ইসলাম, দেশ ও স্বাধীনতা স্বার্বভৌমত্ব বিরোধী বহুমূখি চক্রান্তের অংশ।

মুফতী ফয়জুল করীম আরো বলেন, সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও সামাজিক ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার শ্লোগানকে সামনে নিয়ে স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের চিন্তা চেতনা অনুযায়ী জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করার মহান লক্ষ্যকে নস্যাৎ করে ভিনদেশী দালালরা অনৈক্য সৃষ্টি করতে বিভিন্নভাবে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। ইসলাম ও দেশবিরোধী অনৈক্য সৃষ্টিকারী সকল ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধার সন্তানসহ দেশপ্রেমিক ঈমানদারদেরকে সজাগ থেকে সাহসিকতার সাথে পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম আহ্বান জানান।

আজ বিকেলে পুরানা পল্টনস্থ ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ -এর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম পরিষদের সভাপতি শহিদুল ইসলাম কবির এর নেতৃত্ব সাক্ষাৎ করা প্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময়কালে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতী ফয়জুল করীম এসব কথা বলেন।

মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম বলেন, আমার বাবা ও দাদা এদেশের স্বাধীনতা স্বার্বভৌমত্ব রক্ষায় অপরাধমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে দেশব্যাপী মাহফিলের মাধ্যমে লাখো অপরাধীকে সোনার মানুষে পরিণত করেছেন। এজন্য চরমোনাই পীর সাহেব রহ. এর মত মনিষীদেরকে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি না দিয়ে স্বাধীনতা বিরোধী আখ্যা দেয়া ভুঁইফোড়দের অভিযোগ দুঃখজনক।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের রাজনৈতিক উপদেষ্টা অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ুম, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম, মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম পরিষদের সহ-সভাপতি মুহাম্মাদ নূরুজ্জামান সরকার, মোঃ আমিনুল ইসলামসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ