মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১২, ২০২৩

আফগান সরকারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ কারাবন্দীরা

আমেরিকা ও ন্যাটো বাহিনীর বিরুদ্ধে দীর্ঘ ২০ বছরের যুদ্ধে জয়লাভের পর তালেবান নেতৃত্বাধীন সরকারের অন্যতম চ্যালেঞ্জ ছিল যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তান পুনর্গঠনের। মাদক, দুর্নীতি, সন্ত্রাসবাদ ও বিভিন্ন ধরণের অপরাধের বিরুদ্ধে প্রকৃত ইসলামী আইনের বাস্তবায়ন, বিভিন্ন খাতে প্রতিবেশী দেশগুলোর সাথে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি ও সম্পর্ক স্থাপন, দেশের অভ্যন্তরে একের পর এক উন্নয়নমূলক পদক্ষেপ গ্রহণ ও আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের প্রসার ঘটানো- যা তারা খুব ভালোভাবেই করে যাচ্ছে।

এছাড়া দেশটির বিচার ব্যবস্থায়ও এসেছে আমূল পরিবর্তন। যার সুফল ভোগ করছে কারাগারের বন্দীরা। দ্রুততম সময়ে নিষ্পত্তি হচ্ছে সব ধরণের অপরাধের মামলা। মামলা পরিচালনায় অক্ষমদেরও দেওয়া হচ্ছে রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে নানাবিধ আইনি সহায়তা। প্রকৃত ইসলামী আইন অনুসারে নিশ্চিত করা হচ্ছে বন্দীদের মৌলিক অধিকার।

সম্প্রতি মামলা নিষ্পত্তি ও সাজা ভোগ সাপেক্ষে দেশটির পাকতিয়া জেলায় মোট ১১৬৫ জন বন্দীকে মুক্তি দেওয়া হয়। এদের বিভিন্ন অপরাধের দায়ে আটক করেছিলো পুলিশ।

জেলা কারাগারের পরিচালক মাওলানা সুহাইল সাঈদ বলেন, বিভিন্ন অপরাধের দায়ে মোট ১৩৪৫ জন কারাগারে আটক ছিলেন। তন্মধ্যে ১১৬৫ জনকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। বাকি ১৮০ জনের মামলা বর্তমানে তদন্তাধীন রয়েছে।

কারাগার পরিচালক আরও বলেন, এখন কোনও বন্দীর মামলায় বিলম্ব এবং সময়ক্ষেপণ করা হয়নি। আলহামদুলিল্লাহ, যথা সময়েই সকলের মামলার নিষ্পত্তি হয়েছে। তালেবান নেতৃত্বাধীন সরকার ক্ষমতায় আসার পর বন্দী সহিংসতা ও বন্দীদের সাথে যুগ যুগ ধরে হয়ে আসা অমানবিকতা দূর হয়ে গিয়েছে। তাদের বিভিন্ন ধরণের সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। বিভিন্ন ধরণের পেশায় যুক্ত হওয়ার জন্য তাদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার পাশাপাশি ধর্মীয়, নৈতিক ও যুগোপযোগী শিক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে। যাতে তারা সুস্থ ও স্বাভাবিক মানুষ হিসেবে সমাজে ফিরে যেতে পারে এবং পুনরায় অপরাধে জড়িয়ে না পড়ে। কর্মমুখী প্রশিক্ষণকে কাজে লাগিয়ে স্বাবলম্বী হয়ে উঠতে পারে।

কারাবন্দীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, তাদের সাথে কোনও ধরণের সহিংস ও অমানবিক আচরণ করছে না তালেবান নেতৃত্বাধীন সরকারের জেল প্রশাসন। বরং বিভিন্নভাবে তাদের সহায়তা করে যাচ্ছে, যাতে দ্রুত মামলার নিষ্পত্তি হয় এবং স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যাওয়া যায়।

আগেও বন্দী হয়েছেন এমন একজন বন্দী জানান যে, আগের সরকারের আমলে কারাগারে এমন সুযোগ সুবিধা ও মামলা পরিচালনায় সহায়তা পাওয়ার বিষয়টি অকল্পনীয় ছিলো।

সূত্র: আল ইমারাহ

spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_img