কবরও নিরাপদ নয়, দাফনের পর লাশের মাথা কেটে নিল দুর্বৃত্তরা

এখন যেন কবরও নিরাপদ নয়। দাফনের ১৫ দিন পর কবর খুঁড়ে এক বৃদ্ধার লাশ তুলে মাথা কেটে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার ভোরে লোমহর্ষক এ ঘটনাটি ঘটেছে পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার জয়নগর কেন্দ্রীয় গোরস্তানে।

উদ্ধারকৃত মরদেহটি জয়নগর পূর্বপাড়া গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের স্ত্রী ফজিলা খাতুনের (৮৫) বলে নিশ্চিত করেছে তার পরিবার।

মাথাবিহীন লাশটি উদ্ধার করেছে ঈশ্বরদী থানা পুলিশ।

এর আগে সকালে গোরস্তান কমিটি বিষয়টি জানতে পেরে ঈশ্বরদী থানা ও সলিমপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানকে অবহিত করে। খবর পেয়ে ঈশ্বরদী থানার ওসি নাসির উদ্দীন ও সলিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল মজিদ বাবলু মালিথা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

গত ৩১ অক্টোবর শারীরিক অসুস্থতার কারণে মৃত্যুবরণ করেন ফজিলা খাতুন। ওই দিনই পরিবারের পক্ষ থেকে জয়নগর কেন্দ্রীয় গোরস্তানে তার লাশ দাফন করা হয়। কিন্তু দুই সপ্তাহ পর কে বা কারা কবর খুঁড়ে ফজিলা খাতুনের মরদেহের মাথা কেটে নিয়ে যায়।

ঈশ্বরদী থানার ওসি নাসির উদ্দীন জানান, এ বিষয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে ঈশ্বরদী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হলে লাশটি পুনরায় দাফন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *