শনিবার, জুলাই ২৪, ২০২১

বিহারে এই প্রথম মুসলিমবিহীন মন্ত্রিসভা

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়েছে ভারতের বিহার রাজ্যের বিধানসভার ২৪৩ আসনের নির্বাচন। সেই নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর গত সোমবার (১৬ নভেম্বর) হিন্দুত্ববাদী বিজেপির নেতৃত্বে নতুন মন্ত্রিসভা গঠিত হয়েছে। এতে শপথ নিয়েছে ১৪ জন মন্ত্রী। আবার মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন সংযুক্ত জনতা দলের (জেডিইউ) নেতা নীতীশ কুমার।

এবার এনডিএ জোটে নীতীশের দলের চেয়ে বেশি আসন পেয়েছে হিন্দুত্ববাদী বিজেপি। তবুও দুটি উপমুখ্যমন্ত্রীর পদ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছেড়ে দিয়েছে বিজেপি। মন্ত্রিসভায় বিজেপির মন্ত্রীর পাল্লা ভারি। এনডিএর এই ১৪ জন মন্ত্রীর মধ্যে মুখ্যমন্ত্রীসহ ৫ জন জনতা দল সংযুক্তের, দুই উপমুখ্যমন্ত্রীসহ ৭ জন বিজেপির। আর বাকি ২ জন অপর দুটি শরিক দলের।

১৪ জনের মন্ত্রিসভায় এবার একজন মুসলিমেরও ঠাঁই হয়নি। যদিও বিহারের মন্ত্রিসভার ইতিহাসে এবারই ছিল ব্যতিক্রম। সর্বশেষ নীতীশ কুমারের মন্ত্রিসভায় খুরশিদ আলম নামের এজন মুসলিম মন্ত্রী ছিলেন। এবার বিধানসভা নির্বাচনে এনডিএ জোটের কোনো মুসলিম প্রার্থী ছিলেন না। তবে নীতীশের দলের ১১ জন মুসলিম প্রার্থী নির্বাচনে লড়লেও কেউ জয়ী হতে পারেননি।

এনডিএ জোটের ১৪ জন মন্ত্রীর মধ্যে মুখ্যমন্ত্রীসহ ৫ জন জনতা দল সংযুক্তের, ২ উপমুখ্যমন্ত্রীসহ ৭ জন হিন্দুত্ববাদী বিজেপির। বাকি দুজন দুটি শরিক দলের।

বিহারে জনসংখ্যার ১৬ শতাংশ মুসলিম। মন্ত্রিসভার সদস্যদের শপথ গ্রহণের পরই একজনও মুসলিমকে না রাখায় সমালোচনা ও বিতর্ক শুরু হয়েছে। সমালোচনার মধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার বলেছেন, পরবর্তী মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণের সময় রাজ্য মন্ত্রিসভায় নেওয়া হবে মুসলিম মন্ত্রী।

spot_imgspot_img

আরও