সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২২

মুসলিম বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় দেশ তুরস্ক: মিশরীয়দের জরিপ

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | সোহেল আহম্মেদ


মিশরের নাগরিকরা তুরস্ককে মুসলিম বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় দেশ হিসাবে বিবেচনা করছেন। এছাড়া উল্লেখযোগ্য সংখ্যক মিশরীয়রা বলেছেন যে, তাদের স্বৈরশাসক আবদেল-ফাত্তাহ আল-সিসি সরকারের চলমান আঙ্কারা বিরোধী প্রচারণা চালানো সত্ত্বেও তুরস্কের পক্ষে লড়াই করবেন তারা।

মিশরের তুরস্ক ভিত্তিক গবেষণা সংস্থা আরেদা’র উদ্যোগে গত ২০ আগস্ট থেকে ২৭ আগস্ট ১,০৪৭ জন মিশরীয় নাগরিকের অংশগ্রহণে একটি সমীক্ষা চালানো হয়। এ সমীক্ষায় দেখা গেছে, ৩১.৪% মিশরীয় বলেছেন যে তারা তুরস্ককে মুসলিম বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় দেশ হিসেবে বিবেচনা করেন। আর ১০.৪% বলেছেন সৌদি আরব, ৬.২% সংযুক্ত আরব আমিরাত, ১.৬% কাতার, ১% পাকিস্তান এবং ০.৫% ইরান বলেছেন। আর ৯.৭ % অন্যান্য দেশ এবং ৩৯.২ জন বলেছেন কোন দেশই না।

যুদ্ধের সময় তারা তুরস্কের হয়ে লড়াই করবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে অংশগ্রহণকারীদের ১৫.৩% “হ্যাঁ” জবাব দিয়েছেন। মিশরের স্বৈরশাসক সম্পর্কে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন ৪১.৬% এবং ১৮.৪% বলেছেন তারা সিদ্ধান্তহীন।

দেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে তারা স্বৈরশাসক সিসিকে ভোট দেবেন কি দেবেন না এমন প্রশ্নের জবাবে ৪৮.৫% বলেছেন সিসিকে ভোট দেবেন না। ৩৫% বলেছেন ভোট দেবেন এবং ১৬.৫% বলেছেন তারা সিদ্ধান্তহীন।

মিশরীয় কর্তৃপক্ষ অন্যান্য দেশের প্রভাবে প্রভাবিত হয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে ৪৮.৬% বলেছেন “হ্যাঁ” এবং ৪১.৪% বলেছেন “না” এবং ১০% বলেছেন যে তাদের কোনও ধারণা নেই।

প্রসঙ্গত, স্বৈরশাসক সিসি মিশরের প্রথম গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত শহীদ প্রেসিডেন্ট মুহাম্মাদ মুরসিকে অবৈধভাবে অভ্যুত্থান ঘটিয়ে ক্ষমতাচ্যুত করে। এরপরই তুরস্ক ও মিশরের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি ঘটে।

সিসির অধীনে মিশর তুরস্কবিরোধী অভিযান চালাচ্ছে এবং দেশটিতে ভ্রমণকারী তুর্কি পর্যটকদের গ্রেপ্তার করেছে। এছাড়াও লিবিয়া সংকটে সংযুক্ত আরব আমিরাতের পক্ষে এবং ভূমধ্যসাগর সংকটে তুরস্কের বিরুদ্ধে গিয়ে গ্রিসের পক্ষে অবস্থান নিয়েছে স্বৈরশাসক সিসি।

সূত্র: ডেইলি সাবাহ্

spot_img
spot_img

সর্বশেষ

spot_img