শনিবার, জুলাই ২, ২০২২

আফগান থেকে বিদেশি সৈন্য চলে গেলে গৃহযুদ্ধের ভয়ে চিন্তিত হয়ে পড়ছে ঘানি সরকার

তালেবানদের সাথে চুক্তি মোতাবেক আফগানিস্তান থেকে বিদেশি সৈন্য চলে গেলে গৃহযুদ্ধের ভয়ে চিন্তিত হয়ে পড়ছে দেশটির মার্কিন মদদপুষ্ট আশরাফ ঘানি সরকার।

তাদের দাবির মতে, আফগান সরকার এবং তালিবানের মধ্যে কোন রকম শান্তি চুক্তি ছাড়াই যদি আমেরিকা এবং নেটোবাহিনী সেখান থেকে সৈন্য সরিয়ে নেয় তা হলে দেশটিতে আবার গৃহযুদ্ধ শুরু হয়ে যেতে পারে।

এদিকে মার্কিন মদদপুষ্ট কাবুলের ঘানি সরকারের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হামদুল্লাহ মোহিব দাবি করে বলন, কেউই চায় না তালিবান আবার ফিরে আসুক।

তার দাবি, বিদেশি বাহিনী যদি কোন রকম শান্তি নিস্পক্তি ছাড়াই আফগানিস্তান থেকে বেরিয়ে আসে, তা হলে গৃহযুদ্ধের ঝুঁকি থেকে যায়।

উল্লেখ্য, গত বছরের ২৯ ফেব্রুয়ারি আফগান তালেবানের সাথে আমেরিকা একটি চুক্তি সই করে যার আওতায় আফগানিস্তান থেকে ১২ হাজার মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করার কথা। এর বিনিময়ে তালেবান যোদ্ধারা মার্কিন সেনাদের ওপর হামলা বন্ধ করবে বলে প্রতিশ্রুতি দেয়।

আমেরিকার জন্য আফগানিস্তান ছিল তার সবচেয়ে বেশি দিন স্থায়ী সঙ্ঘাত। আমেরিকা বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার ব্যয় করেছে, তাদের ২,৪০০-এর বেশি সৈন্যকে হারিয়েছে। ২০ বছর কেটে গেছে। কিন্তু এখনো তালেবান তাদের লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে।

তবে তালেবানের সাথে আমেরিকার স্বাক্ষরিত চুক্তিতে আফগানিস্তান থেকে মার্কিন নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা সেনা প্রত্যাহারের কথা বলা হলেও এখন পর্যন্ত সে প্রতিশ্রুতি পূরণ করেনি পেন্টাগন।

সেনা প্রত্যাহারে গড়িমসি করে আমেরিকার বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলছেন, পয়লা মে সময় সীমার মধ্যে আমেরিকার সৈন্য প্রত্যাহার সম্ভব না ও হতে পারে।

এদিকে চুক্তি অনুযায়ী সেনা প্রত্যাহার করা না হলে আমেরিকাকে ভয়াবহ যুদ্ধের’ হুঁশিয়ারি দিয়েছে তালেবান। তারা বলছে, চুক্তি অনুযায়ী সেনা প্রত্যাহার করা না হলে ‘ভয়াবহ যুদ্ধ’ এবং ‘সংঘর্ষের ভয়ঙ্কর বিস্তার’ ঘটবে।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img