বুধবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২১

‘প্রতিরক্ষা খাতে উন্নয়ন ছাড়া আগামীর বিশ্বে নিজেদের অবস্থান জানান দেওয়া সম্ভব নয়’

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান বলেছেন, তুরস্ক আন্তর্জাতিক আইন মেনে নিজেদের সামরিক শক্তি বৃদ্ধির কাজ অব্যাহত রাখবে। অদূর ভবিষ্যতে তুর্কি জাতি সামরিক খাতে সক্ষমতার অভাব বোধ করবে এমটা হতে দেওয়া যায় না। যেকোনো মূল্যে সামরিক শক্তিতে নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী নিয়মিতভাবে বৃদ্ধি করা হবে।

রোববার (২৩ আগস্ট) ইস্তাম্বুলে তুরস্কের নৌবাহিনীতে নতুন প্রতিরক্ষা ও প্রশিক্ষণ সরঞ্জাম যুক্ত করার এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

এরদোগান বলেন, তুরস্ক নতুন উদ্যোমে সামরিক খাত ও প্রতিরক্ষা খাতকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। নতুন প্রযুক্তি অর্জনের মাধ্যমে নিজেদের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে আরো বেশি মনোযোগ দিচ্ছি আমরা।

তিনি বলেন, প্রতিরক্ষাখাতে প্রযুক্তিগত উন্নয়ন ছাড়া আগামীর বিশ্বে নিজেদের অবস্থান জানান দেওয়া সম্ভব নয়। তাই বহির্বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সামরিক প্রতিরক্ষায় প্রযুক্তিগত উন্নয়নের বিকল্প নেই। প্রতিরক্ষা শিল্পে নিয়মিত কার্যক্রম আরো বেশি জোর দার করা হবে। আগামীতে আমরা আরো উন্নত প্রযুক্তির প্রতিরক্ষা অস্ত্র উৎপাদন করবো।

দেশটির নৌ-বাহিনীতে নতুন করে প্রশিক্ষণ নৌকা, দুটি সাবমেরিন, আটটি টহল নৌকাসহ কিছু জরুরি ব্যবহারের জন্য দুটি বিশেষ নৌকা ও কিছু সরঞ্জাম যুক্ত করা হয়। তুরস্ক এরই মধ্যে ইউরোপ, আফ্রিকা ও মধ্যপ্রাচ্যে নিজেদের অধিকার ও আধিপত্যের লড়াইয়ে এক ধাপ এগিয়ে রয়েছে। অর্থনীতি সমৃদ্ধ করার প্রয়োজনে কৃষ্ণ সাগর এবং লোহিত সাগরে তৎপরতা বৃদ্ধি করেছে দেশটি। এরইমধ্যে কৃষ্ণ সাগরে নিজেদের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় গ্যাসের খনিজ আবিষ্কার করে বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে এরদোগান সরকার। নিজস্ব প্রযুক্তির যুদ্ধ জাহাজ নির্মাণে সেরা দশটি দেশের মধ্যে তুরস্কও রয়েছে।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img