আইটি এক্সপার্ট ভাড়া করে অপপ্রচার চালিয়েছে হেফাজত: র‍্যাব

র‍্যাব এর আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেছেন, ভাড়া করা আইটি এক্সপার্ট দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিশেষ অ্যাপসের মাধ্যমে পুরনো ছবি লাইভ বলে প্রচার করে নাশকতার চেষ্টা করেছিলো হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা। তাদের চিহ্নিত করা হয়েছে এবং পর্যায়ক্রমে সবাইকে গ্রেফতার করা হবে।

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) বিকেলে র‌্যাব সদরদফতরে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, পুরনো ভিডিও লাইভ করতো সংগঠনটির আইটি টিম। যারা এ ধরনের আ্যপস ব্যবহার করতো তাদের র‍্যাব শনাক্ত করেছে। তারা বিভিন্ন তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ দিয়ে এ ধরনের গুজব ছড়িয়ে দিতো। এসব কর্মকাণ্ডে জড়িতদের বিরুদ্ধে র‍্যাব অভিযান পরিচালনা করবে।

তিনি বলেন, র‌্যাবের সাইবার মনিটরিং সেল রয়েছে। আমাদের সাইবার মনিটরিং সেল শনাক্ত করেছে যে, হেফাজতে ইসলামের কয়েকজন নেতাকে গ্রেফতারের পর নাশকতা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে বিশেষ অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে ওই সংগঠনের আইটি টিম পুরনো ভিডিও ‘লাইভ’ আকারে ছড়াতো। যারা এ ধরনের অ্যাপস ব্যবহার করতো র‌্যাব তাদের শনাক্ত করেছে। তাদের বিরুদ্ধে র‌্যাব অভিযান পরিচালনা করবে এবং তাদের আইনের আওতায় আনবে।

র‍্যাবের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, দল কিংবা গোষ্ঠী যারা— নাশকতার চেষ্টা করেছে কিংবা নাশকতার জন্য উসকানিমূলক বক্তব্য দিয়েছে, সবাইকেই ধাপে ধাপে র‍্যাব গ্রেফতার করবে এবং তাদের আইনের আওতায় সোপর্দ করা হবে। ইতোমধ্যে হেফাজতের ১২ জন নেতাকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।

গ্রেফতার ১২ জনের বিষয়ে তিনি বলেন, গ্রেফতারকৃতদের বেশিরভাগেরই দেশের বিভিন্ন জেলায় নাশকতার সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা ছিল। তাদের মধ্যে কেউ কেউ ছিলেন, যারা নাশকতা সৃষ্টির জন্য উসকানিমূলক বক্তব্য দিয়েছেন, বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করেছেন। তাদের আমরা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেফতার করেছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *