মঙ্গলবার, মে ২৪, ২০২২

বিধবা ভাতা দেওয়ার কথা বলে ভিক্ষুকের টাকা আত্মসাৎ করল জাতীয় পার্টির নেতা

বরিশালের মুলাদী উপজেলার কাজিরচর ইউনিয়নের কাঠেরচর গ্রামে ৬৫ বছর বয়সী তাহমিনা বেগমের নামে এক ভিক্ষুককে বিধবা ভাতা পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে দুই হাজার টাকা নিয়ে আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয় জাতীয় পার্টির আব্দুর রব নামে এক নেতা বিধবা ভাতা দেওয়ার কথা বলে তার কাছ থেকে ওই অর্থ নেয় বলে অভিযোগ রয়েছে।

ভুক্তভোগী তাহমিনা ওই গ্রামের মৃত আব্দুল মন্নান হাওলাদারের স্ত্রী। অভিযুক্ত আব্দুর রব একই গ্রামের মৃত খাদেম খানের ছেলে এবং কাজিরচর ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড জাতীয় পার্টির সভাপতি।

৩ বছর আগে ওই বৃদ্ধার স্বামী মারা যায়। তাদের কোন সন্তান নেই। সহায় সম্বল বলতে একটি খুপড়ি ঘর। কোন স্বজন এবং সহায়-সম্পদ না থাকায় ভিক্ষা করে সংসার চালাতে হয় ওই ভিক্ষুককে।

তাহমিনা জানান, বিধবা ভাতা পেতে বিভিন্ন ব্যক্তির কাছে ধর্না দিয়েও কোন লাভ হয়নি। এক বছর পূর্বে বিধবা ভাতা পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে তার কাছ থেকে দুই হাজার টাকা নেন আব্দুর রব। গত ঈদ-উল আযহার দিন বিভিন্ন বাড়ি থেকে ৪ কেজি গরুর মাংস পান তিনি। ওই মাংস বিক্রি করে দুই হাজার টাকা আব্দুর রবকে দিলে তিনি দুই মাসের মধ্যে বিধবা ভাতা পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাস দেন। কিন্তু গত ১০ মাসেও বিধবা ভাতা পাননি তিনি। টাকা ফেরত চাইলে উল্টো গালাগাল করে সে। পরে এ বিষয়ে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের কাছে বিচার দেন তিনি।

কাজিরচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মন্টু বিশ্বাস বলেন, তাহমিনা তাকে মৌখিকভাবে বিষয়টি জানিয়েছেন। তাহমিনাকে বিধবা ভাতায় তালিকাভুক্তির উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যত দ্রুত সম্ভব তাকে বিধবা ভাতা দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে।

এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে অভিযুক্ত জাতীয় পার্টি নেতা আব্দুর রব খানের ব্যবহৃত মুঠোফোনে একাধিকবার কল দেওয়া হলেও তার ফোন বন্ধ পাওয়া গেছে।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img