বৃহস্পতিবার, মে ১৯, ২০২২

ইসলামের বিরুদ্ধে আইন; হিজাব নিষেধাজ্ঞার পক্ষে ফরাসী ভোটের নিন্দা

মুসলিম বিরোধী তথাকথিত ‘বিচ্ছিন্নতাবাদ বিরোধী’ বিলের অংশ হিসাবে, ফরাসী সিনেট জনসাধারণের মধ্যে অপ্রাপ্তবয়স্কদের হেড স্কার্ফ বা হিজাবকে নিষিদ্ধ করার পক্ষে মত দিয়েছে।

১৮ বছরের কম বয়সী মেয়েদের জনসম্মুখে হিজাব পরতে নিষেধাজ্ঞার জন্য ফরাসী সিনেটের আবেদনের নিন্দা জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হ্যাশট্যাগ #হ্যান্ডসঅফএমআইহিজাব ব্যাপকভাবে প্রচারিত হচ্ছে।

হিজাব এমন একটি হেড স্কার্ফ যা মুসলিম মহিলারা পরে থাকেন এবং ফ্রান্সে কয়েক দশক ধরে এটি লড়াইয়ের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ফরাসী সিনেটের মুসলিম বিরোধী পদক্ষেপটি প্যারিসের এই তথাকথিত “বিচ্ছিন্নতাবাদ বিরোধী” বিল প্রবর্তনের অংশ। দাবি করা হয়েছে- যে এটি ফ্রান্সের ধর্ম নিরপেক্ষ ব্যবস্থাকে মজবুত করার লক্ষ্যে করা হয়েছে। তবে সমালোচকরা এর নিন্দা করেছেন এবং সংখ্যালঘু মুসলিম জনসংখ্যাকে এককভাবে লক্ষ্য করা হয়েছে বলে স্পষ্ট মতামত ব্যক্ত করেছেন।

হিজাব এর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি এখনও আইনে পরিণত হয়নি। তবে প্রস্তাবিত বিধিটিকে ইসলামের বিরুদ্ধে আইন হিসাবে অভিহিত করেছেন অনেকে।

“ফ্রান্সে অল্প বয়সী মেয়েদের ১৫ বছরের মধ্যে যৌন সম্পর্কের বিষয়ে সম্মতি দেওয়া হয়, তবে রাষ্ট্র মেয়েদের হিজাব পরতে চায় কিনা তা বেছে নিতে দেয় না। এটি ইসলামের বিরুদ্ধে আইন।” #হ্যান্ডসঅবমাইহিজাব #ফ্রান্সহিজাবব্যান হ্যাশট্যাগ দিয়ে লিখেছেন একজন টুইটার ব্যবহারকারী।

বিষয়টি নিয়ে জনপ্রিয় ব্যক্তিরাও মন্তব্য করেছেন।

ইনস্টাগ্রামে অলিম্পিক অ্যাথলিট ইবতিহাজ মুহাম্মাদ সিনেটের সংশোধনীর প্রস্তাবটি শেয়ার করে লিখেছে- “ফ্রান্সে ইসলামোফোবিয়া আরও গভীর হচ্ছে”।

মুসলিম উইমেন্স ডে এবং মুসলিম গারল-এর প্রতিষ্ঠাতা আমানি আল খাতাহবাহ এই ইস্যুতে ফ্রান্স সরকারের সমালোচনা করেছেন।

আইনটিতে বিশেষত ইসলাম শব্দটি উল্লেখ করা হয়নি, তবে ফরাসী মুসলমানরা কয়েক মাস ধরে এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে আসছে এবং বলেছে যে এর বেশ কয়েকটি পদক্ষেপ এককভাবে প্রকাশিত হয়েছে।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল গত মাসে এই প্রস্তাবের বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে- “এটি ফ্রান্সের অধিকার ও স্বাধীনতার উপর মারাত্মক আক্রমণ”। এমনকি এটি সংশোধন বা বাতিল করারও আহ্বান জানিয়েছে তারা।

ফ্রান্সে ইসলাম বিদ্বেষ নতুন কিছু নয়। তবে তা ক্রমাগত বাড়ছে। স্বয়ং দেশটির প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রন ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। মহানবী হযরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে নিয়ে বিরূপ মন্তব্য ও বিদ্রুপ করতেও ছাড়েনি ইসলাম বিদ্বেষীরা।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img