ভারতে করোনার ভয়াবহ রূপ; লকডাউনের প্রয়োজনবোধ করছেন না মোদি

করোনা সংক্রমণে বিশ্বে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ভারত। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সেখানকার আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। এমন পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার স্থানীয় সময় রাত পৌনে ৯টায় জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বললেন, এখনই লকডাউনের প্রয়োজন নেই।

মোদির কথায়, লকডাউন হোক শেষ বিকল্প। প্রয়োজনে করোনা সংক্রমণ রুখতে কনটেনমেন্ট জোন করা যেতে পারে।

মোদি মনে করিয়ে দিয়েছেন, দেশ এখন ভয়ঙ্কর কঠিন অবস্থার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে সাবধানতা অবলম্বনই সেরা উপায়। সামাজিক দূরত্ববিধি মেনে চলা, বাড়ি থেকে বের হলেই বাধ্যতামূলক মাস্ক পরার আহ্বান মোদির।
করোনা মোকাবিলায় স্বাস্থ্যকর্মীসহ প্রথমসারির করোনা যোদ্ধাদের কুর্নিশ জানিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি। তবে বারবার তার কথায় উঠে এসেছে, ‘দেশ কঠিন সময়ের মধ্যে দাঁড়িয়ে। কঠিন চ্যালেঞ্জ।’

তবে মোদির আশা গতবারের মতো এবারও কঠিন চ্যালেঞ্জে উত্তীর্ণ হবে ভারত। গোটা দেশে অক্সিজেনের সঙ্কট চলছে। এ বিষয়ে মোদি বলেছেন, অক্সিজেনের যোগান বাড়ানোর ওপর জোর দেওয়া হয়েছে। দ্রুত এই সমস্যা মিটে যাবে।

টিকাকরণের ওপর জোর দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। এই কঠিন সময়ে কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারকে হাত মিলিয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। বিভিন্ন রাজ্যের কাছে মোদির নির্দেশ, পরিযায়ী শ্রমিকদের দিকে নজর দিন। এখন রাজ্যের বাইরে কাউকে যেতে দেবেন না। যারা অন্য রাজ্য থেকে আসছেন, তাদের দিকেও নজর দিন।

বিভিন্ন ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলো যোগান বাড়াতে শুরু করেছে। তাই ভারতবাসীকে অহেতুক চিন্তা না করে সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন মোদি। পাশাপাশি মনে করিয়ে দিয়েছেন, “গতবারের অভিজ্ঞতা ভয়ঙ্কর। ফের কঠিন সময় এসেছে। কিন্তু মাথা ঠাণ্ডা রেখে সবাইকে এগোতে হবে। সচেতন হতে হবে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *