রবিবার, মে ১৯, ২০২৪

প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রথম তিব্বত সফর করলেন শি জিনপিং

প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রথম তিব্বত সফর করলেন শি জিনপিং। এর মধ্য দিয়ে ওই অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণকে নিশ্চিত করল চীন।

তিব্বতে সামরিক স্থাপনা এবং জাতিবিদ্বেষী নীতির কারণে চীনের বিরুদ্ধে ব্যাপক সমালোচনা রয়েছে আন্তর্জাতিক দুনিয়ায়।

এ খবর দিয়ে অনলাইন টাইমস অব ইন্ডিয়া বলছে, বৃহস্পতিবার আঞ্চলিক রাজধানী লাসা’য় পৌঁছেন তিনি। এ সময় তিনি নাইংছিতে বিরল সফর করেন। এটি হলো তিব্বতে কৌশলগত অবস্থানের একটি শহর, যা ভারতের অরুণাচল প্রদেশের সঙ্গে লাগা। এই সফরে তিনি সিচুয়ান-তিব্বত রেলওয়ের কার্যক্রম পরিদর্শন করেন।

রেডিও ফ্রি এশিয়া একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, শি জিনপিং একটি রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন। এ সময় রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে লোকজন তাকে অভিবাদন জানাচ্ছে। একপর্যায়ে তাকে দেখা যায়, খোলা জানালাবিশিষ্ট একটি মিনিবাস থেকে হাত নাড়ছেন। তিব্বত নিয়ে লেখালেখি করেছেন বৃটিশ শিক্ষাবিদ রবার্ট বার্নেট।

তিব্বতের জনগণের উদ্দেশে বক্তব্য রাখছেন শি জিনপিংয়ের এমন একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন তিনি। এতে তাকে বলতে শোনা যায়, সব অঞ্চলের এবং তিব্বতের সব জাতিসত্তার মানুষকে ভবিষ্যতের সুখী জীবনের দিকে অগ্রসর হতে হবে। এ জন্য আপনাদের যেমন আস্থা আছে, আমারও তেমনি আছে। আপনাদের সবার সুখী ও সুস্থ জীবন কামনা করি।

উল্লেখ্য, এ বছরই তীব্বতের ওপর তাদের সার্বভৌমত্বের ৭০তম বর্ষ উদযাপন করেছে চীন। এই অঞ্চলটির সঙ্গে সীমান্তে চীনের সঙ্গে ভারতের উত্তেজনা বিদ্যমান। কয়েক বছরের মধ্যে গত বছর উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বৃদ্ধির প্রেক্ষিতে দুই দেশই সীমান্তে তাদের সৈন্য সংখ্যা বৃদ্ধি করে। তিব্বত নীতির কারণে ব্যাপক সমালোচিত চীন।

spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_img
spot_img