মঙ্গলবার, জুন ২৫, ২০২৪

মাওলানা মামুনুল হকসহ ৩৬ আলেমের বিরুদ্ধে করা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানালেন ১০১ জন আলেম

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের সাবেক আমীর শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফীর স্বাভাবিক মৃত্যুকে হত্যাকান্ড আখ্যা দিয়ে একটি কুচক্রি মহল বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ও হেফাজতে ইসলামের যুগ্মমহাসচিব মাওলানা মামুনুল হকসহ দেশের ৩৬ জন আলেম উলামার নামে মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত মামলা দায়েরের নিন্দা ও প্রত্যাহারের দাবী জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন দেশের ১০১ জন খ্যাতনামা আলেম।

গত ১৭ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আল্লামা আহমদ শফীর শ্যালক বাদি হয়ে আল্লামা আহমদ শফীর মৃত্যুকে অস্বাভাবিক ও হত্যাকাণ্ড দাবি করে একটি মামলা দায়ের করে। মামলাটি আদালত আমলে নিয়ে পিবিআইকে তদন্ত করে এক মাসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেয়ার আদেশ দেয়।

গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে আলেমগণ বলেন, শাইখুল ইসলাম আল্লামা আহমদ শফীর রহ. এর মৃত্যু ছিল স্বাভাবিক। যা দেশবাসীর সামনে দিবালোকের ন্যায় স্পষ্ট। আল্লামা আহমদ শফীর ইন্তেকালের পর একটি মহল বিভ্রান্ত ছড়ালে তাঁর পরিবারের পক্ষ থেকে তাঁর বড় ছেলে মাওলানা ইউছুফ এবং হাটহাজারী মাদরাসার সিনিয়র শিক্ষকবৃন্দ ভিডিও বার্তার মাধ্যমে আল্লামা আহমদ শফীর মৃত্যুকে স্বাভাবিক বলে জাতির সামনে উপস্থাপন করেছেন। কিন্তু মৃত্যুর এতদিন পরে একটি স্বার্থান্বেষী মহল দেশ এবং জাতিকে বিভ্রান্ত করার জন্য তার মৃত্যুকে অস্বাভাবিক আখ্যায়িত করে মৃত্যুর জন্য মাওলানা মামুনুল হকসহ ৩৬ জনের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও চক্রান্তমূলক মামলা করেছে। এ মামলা জাতি ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে।

আলেমগণ আরো বলেন, একটি মহল আল্লামা আহমদ শফীর জীবদ্দশায় তাঁকে ব্যবহার করে নিজেদের স্বার্থ হাসিল করেছে। তারা আলেমদেরকে সরকারের মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির ফায়দা হাসিল করতে চাচ্ছে। আলেম সমাজ ও ধর্মপ্রাণ মানুষ তাদের চক্রান্তের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে।

আলেমগণ বলেন, মাওলানা মামুনুল হক দেশের সম্পদ ও জনপ্রিয় ইসলামী ব্যক্তিত্ব। তার জনপ্রিয়তায় একটি গোষ্ঠী ঈর্ষান্নিত হয়ে তাকে মামলায় জড়ানো হচ্ছে। হামলা মামলা দিয়ে আলেম উলামাদের হকের আওয়াজ বন্ধ করা যাবে না।

আলেমরা আরও বলেন, আল্লামা আহমদ শফী রহ এর মৃত্যু স্বাভাবিক হয়েছিল এটি একটি মীমাংসিত বিষয়। হাসপাতাল কতৃপক্ষ কর্তৃক ইস্যুকৃত ডেথ সার্টিফিকেটেও তার মৃত্যুকে স্বাভাবিক বলা হয়েছে। এটা নিয়ে দীর্ঘদিন পর নতুনভাবে মামলা দায়ের করা জাতির কাছে প্রত্যাখ্যাত হওয়া জনবিচ্ছিন্ন একটি মহলের ষড়যন্ত্র বৈ কিছু নয়। অনিতিবিলম্বে এই মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। অন্যথায় দেশের ধর্মপ্রাণ মানুষ তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলবে।

বিবৃতিদাতা আলেমগণ হলেন, জামিআ মুহাম্মদিয়া আরাবিয়ার প্রিন্সিপাল মাওলানা আবুল কালাম, জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়ার প্রিন্সিপাল মাওলানা মাহফুজুল হক, জামিআ ইসলামিয়া লালামাটিয়ার প্রিন্সিপাল মাওলানা ফারুক আহমদ, জামিআ রাহমানিয়া আরাবিয়ার প্রধান মুফতি, মুফতি হিফজুর রহমান, জামিয়া কুরআনিয়া ঝাউতলা মাদরাসা চট্টগ্রাম এর প্রিন্সিপাল মাওলানা আলী উসমান, ফেনী শর্শাদি মাদরাসার শাইখুল হাদীস মাওলানা আফজালুর রহমান, জামিয়া জালালিয়া সিলেট এর প্রিন্সিপাল মাওলানা রেজাউল করিম জালালী, মারকাজুল ফিকরিল কুরআন ঢাকা এর প্রিন্সিপাল মাওলানা খুরশিদ আলম কাসেমী, খানকায়ে আখতারিয়া মাদরাসার মানিকগঞ্জ এর প্রিন্সিপাল মাওলানা সাঈদ নূর, মারকাযুত তারবিয়াহ বাংলাদেশের পরিচালক মাওলানা খালিদ সাইফুল্লাহ আইয়ুবী, রাবেতাতুল ওয়ায়েজিন বাংলাদেশের সভাপতি মাওলানা আব্দুল বাসিত খান, জামিয়া ইসলামিয়া বায়তুল ফালাহ মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা তালহা, জামিয়া ইসলামিয়া ওহিদিয়ার প্রিন্সিপাল হাফেজ মাওলানা জুবায়ের, নোয়াখালী দত্তরহাট মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা সিদ্দীক আহমদ, বাইতুল আমান আদাবর মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মাহমুদুর রহমান, আশরাফুল মাদারিস মুহাম্মদপুরের প্রিন্সিপাল মাওলানা ইসমাঈল, আহসানুল উলুম আদাবর মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আমির হোসাইন, বাইতুল ফালাহ মাদরাসার ভাইস প্রিন্সিপাল মাওলানা জালালুদ্দীন আহমদ, আল-কুরআন একাডেমির ভৈরবের পরিচালক মাওলানা আতাউল্লাহ আমীন, জামিআ ইসলামিয়া দারুল উলুম দক্ষিণগাঁও এর শাইখুল হাদীস মাওলানা কোরবান আলী কাসেমী, জামিআ ফারুকিয়া সিলেট এর প্রধান শিক্ষক মাওলানা আব্দুল আজীজ, এমদাদুল উলুম মাদরাসা ফরিদপুর এর প্রিন্সিপাল মুফতি শরাফত হোসাইন, ইদারাতুল মাআরিফ মাদরাসা ময়মনসিংহ এর পরিচালক মুফতি হাবীবুর রহমান, বোরহানিয়া রওজাতুল উলুম মাদরাসা নোয়াখালী এর প্রিন্সিপাল মাওলানা আজিজুর রহমান হেলাল, জামিআ মিল্লিয়া ঢাকার মুহতামিম ড. মাওলানা জি এম মেহেরুল্লাহ, রাবেতাতুল কুরআন মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা এনামুল হক মূসা, মাদরাসায়ে মারকাজুল হিকমাহ ঢাকার মুহতামিম মাওলানা নিয়ামতুল্লাহ, জামিআ রাহমানিয়া বি-বাড়ীয়া এর মুহাদ্দিস মাওলানা মুহসিনুল হাসান, জামিআ মাদানিয়া সিলেট এর প্রিন্সিপাল মাওলানা সামিউর রহমান মূসা, জামিআ মুহাম্মদিয়া ঢাকার ভাইস প্রিন্সিপাল মাওলানা মুহাম্মদ ফয়সাল, দারুল কুরআন মাদরাসা ধানমন্ডির প্রিন্সিপাল মাওলানা ইলিয়াস হামিদী, সিদ্দিকীয়া ইসলামীয়া মাদরাসা নারায়ণগঞ্জ এর প্রিন্সিপাল মাওলানা হোসাইন আহমদ, তালিমুল ইসলাম মাদরাসা চট্রগ্রাম এর প্রিন্সিপাল মুফতি হাসান মুরাদাবাদী, জামিআ আরাবীয়া ইসলামিয়া মৌলভী বাজার এর প্রিন্সিপাল মুফতি হাবীবুর রহমান কাসেমী, জামিআ কুরআনিয়া মেরাজুল উলুম নরসিংদী এর ভাইস প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুন নূর, বেফাকুল মাদারিস হবিগঞ্জ জেলার সভাপতি মাওলানা আব্দুল্লাহ আকিলপুরী, মেসবাহুল উলুম মাদরাসা চট্রগ্রাম এর প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুল জাব্বার, জামিআ ইসলামীয় আমিনীয়ার প্রিন্সিপাল মাওলানা ছানাউল্লাহ আমিনী, মারকাজুল কুরআন ঢাকার পরিচালক মাওলানা আনোয়ার হোসাইন রাজী, আশরাফুল উলুম মাদরাসা কুমিল্লা এর প্রিন্সিপাল মাওলানা ওলিউল্লাহ, জামিআ আরাবীয়া কাসেমুল উলুম কুমিল্লা এর মুহাদ্দিস মাওলানা মনিরুল ইসলাম, তালিমুল কুরআন মাদরাসা কুমিল্লা এর প্রিন্সিপাল মাওলানা সোলাইমান, ষোলঘর মাদরাসা চাঁদপুর এর মুহতামিম মাওলানা লিয়াকত হোসাইন, জামিআতুল আজীজ আল ইসলামিয়া নোয়াখালী প্রিন্সিপাল মাওলানা সালাহ উদ্দীন, জামিআ কুরআনিয়া চট্রগ্রাম এর ভাইস প্রিন্সিপাল মাওলানা এমদাদুল্লাহ সোহাইল, মাওলানা রুহুল আমিন মিরপুর-১৪ ঢাকা, মাওলানা নুরুল্লাহ ফেনী, মাওলানা জসিমউদ্দীন ফেনী, মাওলানা রুহুল আমিন খান ঢাকা, মাওলানা নূর মোহাম্মাদ আজিজি কুমিল্লা, মুফতি সাঈদ আহমদ মিরপুর ঢাকা, মাওলানা আব্দুল মুমিন ডেমরা ঢাকা, মুফতি হাবিবুর রহমান মিরপুর ঢাকা, মাওলানা আব্দুল্লাহ নাটোরী কল্যাণপুর ঢাকা, মাওলানা ইকবাল হোসাইন সিলেট, মাওলানা আব্দুল আজিজ বিবাড়িয়া, মাওলানা আনোয়ার আলী হবিগঞ্জ, মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস হবিগঞ্জ, মাওলানা শামসুল আলম ঢাকা, মাওলানা বদরুদ্দীন মৌলভীবাজার, মাওলানা গাজী রহমাতুল্লাহ সিলেট, মাওলানা নূরুদ্দীন সুনামগঞ্জ, মাওলানা আব্দুল করিম কিশোরগঞ্জ, মাওলানা রেজাউল করিম মোমেনশাহী, মাওলানা আসাদুর রহমান আকন্দ নেত্রকোণা, মাওলানা শাব্বির আহমদ শরিয়তপুর, মাওলানা আফসারউদ্দীন কক্সবাজার, মাওলানা কফিলুদ্দীন কক্সবাজার, মাওলানা নোমানউদ্দীন বান্দরবন, মাওলানা হারুন লক্ষীপুর, মাওলানা আব্দুল কাইয়ুম মামুন নোয়াখালী, মাওলানা মুবারক হোসাইন কচুয়া, মাওলানা আবু সাঈদ নারায়ণঞ্জ, মুফতি তাউহিদুল ইসলাম টাঙ্গাইল, মাওলানা মুহসিনউদ্দীন বেলালী কুমিল্লা, মাওলানা আবুল ইউসুফ মুন্সী কুমিল্লা, মাওলানা খন্দকার মঈনুল ইসলাম বি.বাড়িয়া, মুফতি আব্দুল্লাহ আল আমিন ভৈরব, মাওলানা শামছুল ইসলাম জিলানী কুমিল্লা, মাওলানা মুয়াজ আহমদ মোমেনশাহী, মাওলানা রেজাউল করিম দিনাজপুর, মাওলানা জুবায়ের সাঈদ দিনাজপুর, মাওলানা মাহদী হাসান সিরাজী শরিয়তপুর, মাওলানা আবুল হাসানাত জালালী ঢাকা, মাওলানা শরিফ সাঈদুর রহমান খুলনা, মাওলানা শহিদুল ইসলাম খুলনা, মাওলানা ফজলুর রহমান কিশোরগঞ্জ, মাওলানা জহিরুল ইসলাম ঢাকা, মাওলানা শামছুল হক বাগেরহাট, মাওলানা ফয়জুল্লাহ ভোলা, মাওলানা জুবায়ের আহমদ মোমেনশাহী, মাওলানা কামালুদ্দীন ফারূকী মিরপুর ঢাকা, মাওলানা জুবায়ের কিশোরগঞ্জ, মাওলানা আমানুল হক বি.বাড়িয়া, মাওলানা কামরুল হাসান রাহমানী ফরিদপুর, মাওলানা জামিল আহমদ কুমিল্লা, মাওলানা আতাউর রহমান মাদারিপুর, মাওলানা এহসানুল হক ঢাকা, মাওলানা হুমায়ুন কবির কুমিল্লা, মাওলানা জয়নুল আবেদীন কেরাণীগঞ্জ, মুফতি মাসুম বিল্লাহ কেরাণীগঞ্জ।

spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_img
spot_img