সোমবার, মে ২০, ২০২৪

জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে মুসলিম এলাকায় সেনা মোতায়েন করতে যাচ্ছে আমাসের বিজেপি সরকার

জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে মুসলিম এলাকায় সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে আসামের বিজেপি সরকার। আসামের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা সোমবার (১৯ জুলাই) বিধানসভায় ঘোষণা দেন, আসামের জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে ১ হাজার সেনা নামানো হবে। তবে এটি পুরো আসামের জন্য কার্যকর হবে না। বরং মুসলিম অধুষ্যিত এলাকায় জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে কাজ করবে সেনারা।

এর আগে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের জন্যই রাজ্যে জনসংখ্যা বৃদ্ধি কার্যত বিস্ফোরণের আকার ধারণ করেছে বলে দাবি করেছিলেন হিমন্ত। তার সমাধান হিসেবে স্বেচ্ছায় নির্বীজকরণ এবং দুই সন্তান নীতি চালু করার কথাও শোনা গিয়েছিল তার মুখে।

তিনি বলেন, চর চপোরি এলাকায় ১ হাজার যুবককে নিয়ে গঠিত জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ সেনা নামানো হবে। জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ নিয়ে মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করবেন তারা। এলাকাবাসীর হাতে গর্ভনিরোধক তুলে দেবেন।
এ বছর মে মাসে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন হিমন্ত বিশ্ব শর্মা। শপথ নেওয়ার পর থেকেই একেরপর এক সংখ্যালঘু মুসলিম সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

এরই সূত্র ধরে সোমবার (১৯ জুলাই) তিনি বলেন, ২০০১ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত আসামে হিন্দু জনসংখ্যা যদি ১০ শতাংশ বেড়ে থাকে, মুসলিম জনসংখ্যা বেড়েছে ২৯ শতাংশ। সংখ্যায় কম বলেই হিন্দুদের জীবনযাত্রার মান উন্নত। খোলামেলা বাড়ি, গাড়ি রয়েছে হিন্দুদের। তাদের ছেলেমেয়েরা ডাক্তার-ইঞ্জিনিয়ার হন।

তবে মুসলিম জনসংখ্যার বিস্ফোরণ ঘটছে বলে দাবি করলেও তার সপক্ষে কোনো প্রমাণ দিতে দেখা যায়নি হিমন্তকে।

spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_img
spot_img