শনিবার, জুলাই ১৩, ২০২৪

স্পাইওয়্যার রফতানির বিষয়ে যা বলছে ইহুদিবাদি ইসরাইল

ইহুদীদের সন্ত্রাসবাদী অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এনএসও গ্রুপের বিক্রি করা স্পাইওয়্যারের মতো সাইবার পণ্যগুলো রফতানি করা হয়েছে আইনসম্মত ব্যবহারের জন্য এবং এর একমাত্র লক্ষ্য ছিল অপরাধ ও সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলা করা।

সোমবার মন্ত্রণালয় এই তথ্য জানায়। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এখবর জানিয়েছে।

২০১৯ সাল থেকে ১৭টি দেশের সংবাদমাধ্যম মিলে ‘দ্য পেগাসাস প্রজেক্ট’ নামের একটি প্ল্যাটফর্ম থেকে ইসরায়েলি স্পাইওয়্যার ব্যবহার করে ফোনে নজরদারির বিষয়ে অনুসন্ধান চালিয়ে যাচ্ছে। রবিবার এই অনুসন্ধানের ভিত্তিতে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে।

এতে উঠে এসেছে দুনিয়াজুড়ে নজরদারির শিকার হয়েছেন মানবাধিকার কর্মী, রাজনীতিক, সাংবাদিক, আইনজীবীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার সদস্যরা। বিশ্বজুড়ে ৫০ হাজার ফোন হ্যাক করে সেগুলোতে নজরদারি চালানোর বিষয়টি।

সিএনএন, আল জাজিরা এবং নিউইয়র্ক টাইমসসহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের ১৮০ জনেরও বেশি সাংবাদিকের নাম এই তালিকায় রয়েছে।

স্পাইওয়্যারটির বিক্রেতা ইসরাইলি প্রতিষ্ঠান এনএসও-র দাবি, এই হ্যাকিংয়ের সঙ্গে তারা যুক্ত নয়। তারা শুধু আইনশৃঙ্খলাবাহিনী এবং বাছাইকৃত সরকারের গোয়েন্দা সংস্থার কাছে এই প্রযুক্তি বিক্রি করে।

ইসরাইলি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় নিজেদের বিবৃতিতে বলেছে, শুধু সরকারি সংস্থা, আইনসম্মত ব্যবহার এবং অপরাধ ও সন্ত্রাস দমন ঠেকাতে ও অনুসন্ধানের জন্য ইসরাইল সাইবার পণ্য রফতানির অনুমোদন দেয়।

এর আগে ইসরাইলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী নিটজান হরোউইৎজ সাংবাদিকদের বলেছিলেন, এনএসও গ্রুপের রফতানির বিষয়টি নিয়ে তিনি বৃহস্পতিবার প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেনি গান্তজের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_img
spot_img