মঙ্গলবার, জুন ১৮, ২০২৪

শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে ৬২ মিলিয়ন ডলার দিল বিশ্বব্যাংক

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আওতায় বাস্তবায়নাধীন প্রকল্প বাস্তবায়নে ৬২ মিলিয়ন ডলার ঋণ ছাড় করেছে বিশ্ব ব্যাংক। শিক্ষা মন্ত্রণালয় বিশ্ব ব্যাংকের এ ঋণের টাকা দিয়ে সেকেন্ডারি এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম নামের একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে।

আজ সোমবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। করোনাকালীন বাংলাদেশে চলমান প্রকল্পগুলোর মধ্যে এটি সর্বোচ্চ ঋণ ছাড়। এ ঋণের জন্য বিশ্ব ব্যাংক বাংলাদেশকে ৩৫টি শর্ত দিয়েছিল। এর মধ্যে চলতি বছরের জন্য নির্ধারিত ছয়টি শর্ত সন্তোষজনকভাবে সম্পন্ন করায় এ ঋণের অর্থ ছাড় করা হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়েছে, শিক্ষায় সংস্কার আনতে মন্ত্রণালয় এটি সফলভাবে বাস্তবায়ন করেছে। সেকেন্ডারি এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামে আটটি ক্ষেত্রে ৩৫টি ফলাফল অর্জনের পরিপ্রেক্ষিতে ৫১০ ইউএস মিলিয়ন ডলারের ঋণ সহায়তা দেওয়ার বিষয়ে ২০১৮ সালে বিশ্ব ব্যাংকের সঙ্গে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এর মধ্যে এ বছরের জন্য নির্ধারিত ছয়টি শর্তের ফলাফল সন্তোষজনক হওয়ায় এই ৬২ মিলিয়ন ইউএস ডলার ছাড় করা হয়েছে।

গত ১৩ ডিসেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব বরাবরে এ সংক্রান্ত চিঠি দেয় বিশ্বব্যাংক। অর্জিত ফলাফল বিশ্ব ব্যাংক নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় যাচাই করে এবং অর্জিত ফলাফলে তারা সন্তুষ্টি প্রকাশ করে। অর্জিত ছয়টি ফলাফলের মধ্যে রয়েছে পঞ্চম শ্রেণি সম্পন্ন করার পর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রবেশের পূর্বে শিক্ষার্থীদের সক্ষমতা যাচাইয়ের লক্ষে ডায়াগনিস্টিক অ্যাসেসমেন্ট গাইড লাইন তৈরি করা, শিক্ষকদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পড়ানোর সময় মনিটরিং করার গাইড লাইন তৈরি করা, হারমোনাইজ স্টাইপেন্ড ব্যবস্থা চালু করাসহ শিক্ষা মন্ত্রণালয় বিভিন্ন সংস্থার আর্থিক সক্ষমতা বৃদ্ধি করা সংক্রান্ত।

spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_img
spot_img