ভারতে তথাকথিত গরু জবাই প্রতিরোধ আইনের নামে নিরপরাধদের পাঠাচ্ছে কারাগারে

ভারতের উত্তর প্রদেশের এলাহাবাদ হাইকোর্ট গরু জবাই প্রতিরোধ আইনের অপব্যবহার সম্পর্কে রাজ্য সরকারকে তিরস্কার করেছে। আদালত বলেছে, যেকোনও ধরণের গোশত উদ্ধারের পরে তাকে ফরেনসিক পরীক্ষা না করেই গরুর গোশত বলে নিরপরাধকে কারাগারে পাঠানো হচ্ছে।

সোমবার (২৬ অক্টোবর) উগ্র হিন্দুত্ববাদী যোগীর রাজ্যের এলাহাবাদ হাইকোর্ট ওই মন্তব্য করেছে।

হাইকোর্টের বিচারপতি সিদ্ধার্থ কঠোর মনোভাব নিয়ে বলেন, মানুষকে এমন অপরাধের জন্য কারাগারে প্রেরণ করা হচ্ছে, যা তারা মোটেই করেন না। গরু জবাই প্রতিরোধ আইনের আওতায় রহিমউদ্দিন নামে এক মুসলিম অভিযুক্তকে জামিন দেওয়ার সময়ে আদালত উগ্র হিন্দুত্ববাদী রাজ্য সরকারের এ সংক্রান্ত নীতিমালা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে।

প্রশাসনের পক্ষ থেকে শ্যামলী জেলায় ‘গরু জবাই প্রতিরোধ আইন ১৯৫৫’- এর আওতায় অভিযুক্তর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছিল। চলতি বছরের ৫ আগস্ট থেকে ওই অভিযুক্ত কারাগারে রয়েছেন। যদিও তাকে ঘটনাস্থল থেকে গ্রেফতার করা হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *