শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩

দেশের শিক্ষা সিলেবাসকে কোনভাবেই মুসলমানদের সিলেবাস বলা যায় না : মুফতী ফয়জুল করীম

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ ফয়জুল করীম বলেছেন, ইসলামী জনতাকে পাশ কাটিয়ে এবং জনমতের কোন প্রকার তোয়াক্কা না করে পার্শ্ববর্তী দেশের প্রেসক্রিপশন অনুযায়ি প্রণীত শিক্ষা সিলেবাস এদেশে চলতে পারে না। এ সিলেবাস দেখলে মনে হয় না যে, ৯২ ভাগ মুসলমানের চিন্তা চেতনা অনুযায়ী করা হয়েছে। কাজেই এ সিলেবাস এদেশে চলতে পারে না। শিক্ষা সিলেবাসের মাধ্যমে ইসলামী তাহজীব তামাদ্দুনকে ধুলিস্যাৎ করার চক্রান্ত পাকাপোক্ত করা হয়েছে।

আজ সোমবার (২৩ জানুয়ারি) বিকেলে ইসলামী যুব আন্দোলন বাংলাদেশ বরিশাল মহানগর যুব কনভেনশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মুফতী ফয়জুল করীম বলেন, কতিপয় বেঈমান নাস্তিক-মুরতাদ মুসলমানদের ঈমান-আক্বিদা ধ্বংসের জন্য শিক্ষা সিলেবাসে ডারঊইনের মতবাদ চালু এবং ইসলামী শিক্ষাকে সঙ্কুচিত করেছে। দেশে নাস্তিক্যবাদ ও হিন্দুত্ববাদ প্রতিষ্ঠার চক্রান্ত রুখে দিতে হবে। এদেশের কোমলমতি শিশুদের বানরের সন্তান বানানোর ষড়যন্ত্র এবং হিজাব সর্ম্পকেম বিদ্বেষ ছড়ানোর পরিণাম শুভ হবে না।

তিনি বলেন, সরকার জনমতের প্রতি তোয়াক্কা না করে বার বার নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধি করে জনজীবনকে বিষিয়ে তুলছে। একের পর এক গণবিরোধী সিদ্ধান্ত সাধারণ মানুষের জীবনকে চরম দুবির্ষহ করে তুলেছে। একটি গোষ্ঠীকে সুবিধা দিতে অবৈধ সরকার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি করেছে। সরকারের দুঃশাসন, দুর্নীতি ও অর্থ পাচারের কারণে দেশের অর্থনীতি ভেঙে পড়েছে। ডলার সংকটের কারণে এলসি খোলা যাচ্ছে না, ব্যবসা-বাণিজ্যে চরম অস্থিরতা ও হতাশা বিরাজ করছে। জনজীবনে চলছে মারাত্মক সংকট।

spot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_img