বৃহস্পতিবার, মার্চ ৪, ২০২১

বিদায় বিষাদের বিশ

ঘটনাবহুল ২০২০ সাল বিদায় নিচ্ছে আজ। অন্যান্য বছরের তুলনায় নানান কারণে আলোচিত এই বছরটি স্মরণীয় হয়ে থাকবে। করোনাভাইরাস মহামারী, যুদ্ধ, খুন, ধর্ষণ, বিশিষ্টজনদের ইন্তেকালের কারণে ২০২০ সালটি ছিল বিশ্ববাসীর কাছে বিষাদময়।

বাংলাদেশের ইসলামী অঙ্গনের জন্যও বছরটি ছিল বেশ কষ্টের। শীর্ষস্থানীয় আলেমদের ইন্তেকালের মতো একের পর এক দুঃসংবাদ এসেছে বছরজুড়ে।

বলা হয় ‘আলেমদের মৃত্যু মানে জগতের মৃত্যু’। এক বছরের মধ্যে শীর্ষস্থানীয় আলেমদের বড় একটি অংশের চিরবিদায়ের মতো ঘটনা হয়তো ইসলামপন্থিরা আগে কখনো প্রত্যক্ষ্য করেননি। এই শূন্যতা কবে, কখন পূরণ হবে কিংবা আদৌ পূরণ হবে কি না, কেউ জানে না।

২০২০ সালে শীর্ষস্থানীয় আলেমদের মধ্যে যারা ইন্তেকাল করেছেন-


শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ.
দেশের আলেম সমাজের মুরব্বী, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির, আল-জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম, হাটহাজারীর মহাপরিচালক, বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া-বেফাকের সভাপতি, আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশের চেয়ারম্যান ও শাইখুল ইসলাম হুসাইন আহমদ মাদানীর খলীফা শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. গত ১৮ সেপ্টেম্বর, শুক্রবার সন্ধ্যায় পুরান ঢাকার গেণ্ডারিয়ায় আজগর আলী হাসপাতালে বার্ধক্যজনিত কারণে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ১০৩ বছর।

আল্লামা শাহ আহমদ শফী ছিলেন দেশের আলেম সমাজের প্রধান মুরব্বী। তিনি দীর্ঘ ৩ যুগ দেশের সর্ববৃহৎ কওমী মাদরাসা দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারীর মহাপরিচালক ছিলেন। তিনি একাধারে বেফাক-হাইয়া সহো অসংখ্য ইসলামী ধারার প্রতিষ্ঠানের নেতৃত্ব দিয়ে গেছেন। এছাড়াও তাঁর হাতেই প্রতিষ্ঠিত হয় দেশের সর্ববৃহৎ অরাজনৈতিক সংগঠন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ-এর। তিনি মৃত্যু অবদি এই সংগঠনের আমীরের দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০১৩ সালে আল্লামা শফীর নেতৃত্বে দেশে ইসলামপন্থীদের গণজাগরণ তৈরি হয়।

তাঁর জানাজায় মানুষের ঢল নামে। স্মরণকালের সর্ববৃহৎ নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়  ১৯ সেপ্টেম্বর হাটহাজারীতে। শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফীর মৃত্যুতে যে শূন্যতা তৈরি হয়েছে, তা কোনোকালেই আর পুরন হয়ে সম্ভব নয়।


আল্লামা শাহ আবদুল মোমিন শায়খে ইমামবাড়ী রহ.
গত ৮ এপ্রিল, বুধবার দিবাগত রাতে ইন্তেকাল করেন শাইখুল ইসলাম হোসাইন আহমদ মাদানীর খলীফা, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ-এর সভাপতি মাওলানা শাহ আবদুল মোমিন শায়খে ইমামবাড়ি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো প্রায় ১০০ বছর। তিনি দীর্ঘদিন বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে অসুস্থ ছিলেন। শায়খে ইমামবাড়ী ছিলেন শাইখুল ইসলাম হোসাইন আহমদ মাদানীর জীবিত খলীফাদের অন্যতম।


আল্লামা হাফেজ তোফাজ্জল হক হবিগঞ্জী রহ.
গত ৫ জানুয়ারি, রবিবার ইন্তেকাল করেন দেশের অন্যতম শীর্ষ আলেম, সিলেটের ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জামেয়া আরাবিয়া ইসলামিয়া উমেদনগর মাদরাসার প্রিন্সিপাল ও শায়খুল হাদিস আল্লামা তোফাজ্জল হক হবিগঞ্জী। মৃত্যকালে তার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর।

আল্লামা হবিগঞ্জী ছিলেন দেশের অন্যতম শীর্ষ আলেম। তিনি হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমীর, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের সহসভাপতি, ও বেফাকের সহসভাপতি দায়িত্ব পালন করেন।


আল্লামা নূর হুসাইন কাসেমী রহ.

গত ১৩ ডিসেম্বর, রোববার ইন্তেকাল করেন দেশের অন্যতম শীর্ষ আলেম জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব, বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া-বেফাকের সিনিয়র সহ-সভাপতি, আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশের কো-চেয়ারম্যান ও জামিয়া মাদানিয়া বারিধারা মাদরাসার মুহতামিম আল্লামা নূর হুসাইন কাসেমী। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর।

আল্লামা কাসেমী ছিলেন দেশের শীর্ষ আলেমদের অন্যতম। তিনি একাধারে অরাজনৈতিক সংগঠন হেফাজত, রাজনৈতিক দল জমিয়ত, শীর্ষ কওমী মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড বেফাকসহ অনেকগুলো দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নেতৃত্ব দিয়ে গেছেন। তাঁর সবচেয়ে বড় পরিচয় ছিলো, তিনি একজন সুদক্ষ ছাত্র গড়ার কারিগর। তাঁর হাতে গড়ে উঠেছেন দেশের অসংখ্য শাইখুল হাদীস, মুহাদ্দীস, মুফতীগণ। ১৪ ডিসেম্বর রাজধানীর বাতুল মোকাররম জামে মসজিদে স্মরণকালের বৃহৎ জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন দেশের প্রায় সকল শীর্ষ আলেম-ওলামাগণ।


আল্লামা শাহ মোহাম্মদ তৈয়ব রহ.
গত ২৪ মে, রোববার চটগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন দেশের অন্যতম প্রাচীন দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চট্টগ্রামের আল জামিয়াতুল আরাবিয়াতুল ইসলামিয়া জিরি মাদরাসার মুহতামিম ও বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের সহসভাপতি মাওলানা শাহ্ মোহাম্মদ তৈয়ব। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো ৭৯ বছর। বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের সহ-সভাপতি ছিলেন। দীর্ঘদিন ধরে তিনি বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন।

দেশের অন্যতম শীর্ষ এই আলেম রমজান মাসের শেষ দশকে ইতেকাফ করেছেন। ইতেকাফ শেষে অসুস্থতাবোধ করলে তাকে রাতে হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে তিনি জায়নামাজে সেজদারত অবস্থায় ইন্তেকাল করেন।


আল্লামা আযহার আলী আনোয়ার শাহ রহ.
গত ২৯ জানুয়ারি, বুধবার রাজধানী ঢাকার ইবনে সিনা হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন প্রখ্যাত আলেম, কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শহিদী জামে মসজিদের খতীব আল্লামা আযহার আলী আনোয়ার শাহ। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর। তিনি ছিলেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত আলেম ও রাজনীতিবিদ আল্লামা আতহার আলী রহ. এর জ্যেষ্ঠ পুত্র।


মাওলানা শাহ্ মুহাম্মদ ইদ্রিস রহ.

২৭ মে, বুধবার ইন্তেকাল করেন দেশের অন্যতম শীর্ষ ইসলামী শিক্ষা কেন্দ্র চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে অবস্থিত জামিয়া আরাবিয়া নাছিরুল উলুম নাজিরহাট বড় মাদরাসার মোহতামিম ও শাইখুল হাদিস মাওলানা শাহ মুহাম্মদ ইদ্রিস। তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো ৭৯ বছর। তিনি বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজের পর মাদরাসার মাঠে আল্লামা শাহ মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরীর ইমামতিতে মরহুমের জানাজার নামাজ সম্পন্ন হয়। জানাজা শেষে মাদরাসা সংলগ্ন কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।


মাওলানা মুনিরুজ্জামান সিরাজী রহ.
৯ আগস্ট, রোববার ইন্তেকাল করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জামিয়া সিরাজিয়া দারুল উলুম ভাদুঘরের মুহতামিম ও শায়খুল হাদিস এবং ধামতী ইসলামিয়া কামিল মাদরাসার সাবেক মুহাদ্দিস মাওলানা মুনিরুজ্জামান সিরাজী। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো  ৯০ বছর।

তিনি ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বড় হুজুর খ্যাত মাওলানা সিরাজুল ইসলাম হুজুরের বড় পুত্র।


মাওলানা শাহ মোহাম্মদ কুতুব উদ্দিন রহ.
গত ২০ মে, বুধবার ইন্তেকাল করেন চট্টগ্রামের বায়তুশ শরফের পীর মাওলানা শাহ মোহাম্মদ কুতুব উদ্দিন। রাজধানীর ধানমন্ডি আনোয়ার খান মডার্ন হসপিটাল লিমিটেডের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। তিনি ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড ও ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের শরিয়াহ সুপারভাইজারি কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ছিলেন।


মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামী রহ.
১১ মে, সোমবার ইন্তেকাল করেন দেশের প্রবীণ রাজনীতিবীদ, ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান ও নেজামে ইসলাম পার্টির একাংশের সভাপতি মাওলানা আব্দুল লতিফ নেজামী। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৪।  তিনি ছিলেন দেশের শীর্ষ আলেম রাজনীতিবিদ।


মাওলানা জুবায়ের আহমদ আনসারী রহ.
গত ১৭ এপ্রিল, শুক্রবার ইন্তেকাল করেন প্রখ্যাত মুফাসসিরে কুরআন, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের সিনিয়র নায়েবে আমির, ব্রাহ্মণবাড়িয়া বেড়তলা জামিয়া রাহমানিয়ার প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল আল্লামা জুবায়ের আহমদ আনসারী। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৭০ বছর।


মাওলানা ইমদাদুল হক হবিগঞ্জী রহ.

গত ৬ ডিসেম্বর ইন্তেকাল করেন জাতীয় ঈদগাহের ইমামম ও জামেয়া তোয়াক্কুলিয়া রেঙ্গা মাদরাসার শায়খুল হাদিস শায়খুল হাদিস মাওলানা ইমদাদুল হক হবিগঞ্জী। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো ৮১ বছর।


মুফতী রহিমুল্লাহ রহ.

গত ২৫ নভেম্বর ইন্তেকাল করেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ-এর সহকারী মহাসচিব, ফেনী জেলা শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ফেনী লালপোল সুলতানিয়া মাদরাসার মুহাদ্দিস মুফতী মুহাম্মদ রহিমুল্লাহ কাসেমী।


মাওলানা খলিলুর রহমান হামিদী রহ.
গত ৯ অক্টোবর ইন্তেকাল করেন আঞ্জুমানে হেফাজতে ইসলামের আমীর, মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলাস্থ জামিয়া লুৎফিয়া আনোয়ারুল উলূম বরুণা মাদরাসার মুহতামিম ও বরুণার পীর মাওলানা খলিলুর রহমান হামিদী ইন্তেকাল করেছেন। তিনি দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন রোগে ভুগছেন।


মাওলানা আব্দুর রহীম বোখারী রহ.
গত ১৬ এপ্রিল ইন্তেকাল করেন কক্সবাজার চকরিয়া ইমাম বোখারী রহ. মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক ও আঞ্জুমানে ইত্তেহাদুল মাদারীস বাংলাদেশে-এর পরিদর্শক মাওলানা আব্দুর রহীম বোখারী ইন্তেকাল করেছেন। তিনি জামেয়া ইসলামিয়া পটিয়ার মুহতামিম মুফতী আব্দুল হালীম বোখারীর ছোটভাই।


মাওলানা মুজিবুর রহমান পেশোয়ারী রহ.
গত এপ্রিল ১৪ ইন্তেকাল করেন খেলাফত মজলিসের নায়েবে আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান পেশোয়ারী। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭০ বছর।


মাওলানা গোলাম সারোয়ার সাঈদী রহ.
গত ২১ নভেম্বর ইন্তেকাল করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আড়াইবাড়ি ইসলামিয়া কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ, আড়াইবাড়ি দরবারের পীর মাওলানা গোলাম সারোয়ার সাঈদী। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫২ বছর। অসুস্থ হওয়ার পর বেশকিছু দিন তিনি লাইফ সাপোর্টে ছিলেন।


আন্তর্জাতিক অঙ্গন-


মুফতী সাঈদ আহমাদ পালনপুরী রহ.
গত মে ১৯ ইন্তেকাল করেন বিশ্বের অন্যতম প্রধান ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দারুল উলুম দেওবন্দের সদরুল মুদাররিস শাইখুল হাদিস আল্লামা মুফতী সাঈদ আহমাদ পালনপুরী।

মুফতি সাঈদ আহমদ পালনপুরী ১৯৭৫ সনে দারুল উলুম দেওবন্দে শিক্ষক হিসাবে নিয়োগ পান। ২০০৮ সনে শায়খুল হাদীস মাওলানা নাসির খান ইন্তেকালকরলে তিনি শায়খুল হাদীস হন। তাছাড়া তিনি দারুল উলূম দেওবন্দে সদরুল মুদাররিসীন হিসাবেও অধিষ্ঠিত ছিলেন।


মুফতী মুহাম্মাদ নাঈম রহ.
গত ২০ জুন ইন্তেকাল করেন পাকিস্তানের শীর্ষ আলেম ও রাজধানী শহর করাচীতে অবস্থিত জামিয়া বিন্নুরিয়াহর মোহতামিম মুফতী মুহাম্মাদ নাঈম। জানা যায়, পাকিস্তানের এই বরণ্য আলেম হৃদরোগে আক্রান্ত ছিলেন।


মুফতী জারওয়ালী খান রহ.

গত ৭ ডিসেম্বর, সোমবার ইন্তেকাল করেন  পাকিস্তানের প্রখ্যাত আলেম ও জামিয়া আহসানুল উলুমের মুহতামিম মুফতী জারওয়ালী খান ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। তিনি ছিলেন পাকিস্তানের অন্যতম শীর্ষ আলেম ও মুহাদ্দীস।


ডক্টর আল্লামা খালিদ মাহমুদ
গত মে ১৪, ইন্তেকাল করেন বৃটেনের শীর্ষ আলেমে দ্বীন, বহু গ্রন্থ প্রণেতা, ইসলামীক সেন্টার ম্যানচেষ্টারের প্রতিষ্ঠাতা ডক্টর আল্লামা খালিদ মাহমুদ।


মাওলানা খাদিম হোসাইন রিজভী রহ.

গত নভেম্বর ২০ ইন্তেকাল করেন  পাকিস্তানের তেহরীকে লাব্বাইকের প্রধান মাওলানা খাদিম হোসাইন রিজভী। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৪ বছর।

মহানবী হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর অবমাননার শাস্তি স্বরূপ ব্লাসফেমী আইন কার্যকরের পক্ষে দক্ষিণ এশিয়া জুড়ে প্রচারণা চালানো ছাড়াও ফ্রান্সে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন প্রকাশকে কেন্দ্র করে সম্প্রতি পাকিস্তান জুড়ে ফ্রান্স বিরোধী শক্তিশালী গণআন্দোলনের পিছনেও মূল ভূমিকায় ছিল তার প্রতিষ্ঠিত রাজনৈতিক দল তেহরীকে লাব্বাইক টিএলপি।