শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২১

বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি নামতে পারে ১.৬ শতাংশে: বিশ্বব্যাংক

করোনাভাইরাসের সংকটের কারণে চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের অর্থনীতিকে মোট দেশজ উৎপাদন- জিডিপি’তে বড় ধসের পূর্বাভাস দিয়েছে বিশ্বব্যাংক।

সংস্থাটির ভাষ্য, ৩০ জুন শেষ হতে যাওয়া এবারের অর্থবছরে দেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি নামতে পারে মাত্র ১.৬ শতাংশে।

আসছে অর্থবছরে বাংলাদেশের জিডিপি আরও কমতে পারে বলে আভাস দিয়েছে বিশ্বব্যাংক, সে বছর প্রবৃদ্ধি দাঁড়াতে পারে মাত্র ১ শতাংশ।

সোমবার ‘গ্লোবাল ইকোনমিক প্রসপেক্টাস’-এর ২০২০ এর জুনের প্রতিবেদনে বাংলাদেশ নিয়ে এসব পূর্বাভাস দেয় সংস্থাটি।

গত বছর বাংলাদেশের জিডিপি’র প্রবৃদ্ধি হয়েছিল রেকর্ড ৮.১৫ শতাংশ। করোনা সংকট সেই অবস্থা থেকে এবার নামিয়ে দিতে পারে মাত্র ১.৬ শতাংশে।

এর আগে বাংলাদেশের জিডিপি নিয়ে ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিটও (ইআইইউ) পূর্বাভাস দিয়েছিল, এবারের অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি হতে পারে ১.৬ শতাংশ।

যদি বিশ্বব্যাংকের পূর্বাভাসই সত্যি হয়, তাহলে ৩৭ বছরের মধ্যে সবচেয়ে কম প্রবৃদ্ধি দেখবে বাংলাদেশ। বিশ্বব্যাংকের ইন্ডিকেটর (ডব্লিউডিআই) উপাত্ত থেকে জানা যায়, জিডিপিতে এর আগে দেশের সর্বনিম্ন প্রবৃদ্ধি ছিল ২.১৩ শতাংশ, ১৯৮১-৮২ অর্থবছরে।

চলতি বছরের এপ্রিলে বিশ্বব্যাংক পূর্বাভাস দিয়েছিল, কভিড-১৯ সংকটের কারণে বাংলাদেশের জিডিপি’র প্রবৃদ্ধি নামতে পারে ২ থেকে ৩ শতাংশে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনা সংকটের কারণে চলতি বছর বৈশ্বিক অর্থনীতি ৫.২ সংকুচিত হয়ে যেতে পারে, তা হবে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর সর্বোচ্চ ধস।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, বিশ্বব্যাংকের পূর্বাভাস অনুযায়ী এ বছর ভারতের প্রবৃদ্ধি হবে ৪ দশমিক ২ শতাংশ যা পরের বছর ৩ দশমিক ২ শতাংশ সংকুচিত হতে পারে। পাকিস্তানে এ বছর ২ দশমিক ৬ শতাংশ সংকুচিত হতে পারে এবং শ্রীলঙ্কার জিডিপি সংকুচিত হতে পারে ৩ দশমিক ২ শতাংশ।

দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে খারাপ অবস্থার পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে মালদ্বীপের। দেশটির অর্থনীতি এ বছর ১৩ শতাংশ সংকুচিত হতে পারে। আফগানিস্তানের জিডিপি সংকুচিত হতে পারে সাড়ে ৫ শতাংশ।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img