লুটপাটের অংশ হিসেবে বাস ভাড়া বাড়িয়েছে সরকার: মির্জা ফখরুল

বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘করোনা মহামারির ভয়াবহতা বিবেচনা না এনে সবকিছু খুলে দিয়ে সরকার কানে তুলা দিয়েছে।’

সোমবার (১লা জুন) দুপুরে, এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব এই মন্তব্য করেন।

বাসভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়ানোর সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছেন বিএনপির মহাসচিব। তিনি বলেছেন, ‘এটা অমানবিকতা। কম আয়ের মানুষই বাসে ওঠে। কার স্বার্থে বাস ভাড়া বাড়িয়েছে? মালিকদের স্বার্থে। মালিকদের আবার অনুদান দিচ্ছে। পুরো বিষয়টা হয়েছে লুটপাটের জন্য।’

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় শুরু থেকে সরকারের সব পদক্ষেপই ভুল ছিল উল্লেখ করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘বারবার করে বিশেষজ্ঞরা বলছেন এবং তাঁদের নিয়োজিত পরামর্শক কমিটিই বলেছে, আরও কিছুদিন নিয়ন্ত্রণে রাখতে। প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসকও বলেছেন।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ট্রেন, বাস, লঞ্চে মানুষ গাদাগাদি করে উঠছে। বাংলাদেশে গণপরিবহন এভাবে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব না। আরও সময় নিতে পারত।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, দায়িত্বশীলতা নেই বলেই সরকার তুঘলকি কারবার করছে। জনগণকে মহাবিপদের দিকে ফেলে দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, সরকারের দায়িত্বহীনতা, সমন্বয়হীনতা। মনেই হয় না যে সরকার আছে। একেক বিভাগ একেক রকম সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। সরকারের সুনির্দিষ্ট কোনো দিকনির্দেশনা নেই। সরকারের একলা চলো নীতি উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

সিকদার গ্রুপের দুই ভাইয়ের দেশ ছাড়ার প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সরকার কোথায়? আজকে এই কারণেই দেশ ভয়াবহ পরিণতির দিকে যাচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘কৃষকদের ন্যায্যমূল্য পাওয়ার ব্যাপারে সরকারের কোনো উদ্যোগ নেই। ধান কাটার নামে আওয়ামী লীগ নেতারা কৃষকের পাকা ধান নষ্ট করেছেন। কোথাও কাঁচা ধান কেটেছেন। বিএনপি কৃষকের ধান কাটতে সহায়তা করেছে।’

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘বোরো ধানের উৎপাদন হবে প্রায় দুই কোটি মেট্রিক টন। আর সরকার সংগ্রহ করবে ধান ৮ লাখ ও চাল ১৪ লাখ টন, যা উৎপাদনের মাত্র ৯ শতাংশ। বিএনপি এই পরিমাণ ২০ শতাংশ করার দাবি জানায়।’

তিনি আরও বলেন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি চিকিৎসক জাফরুল্লাহ চৌধুরীর প্রতিষ্ঠানের কিট প্রমাণিত হয়ে গেছে যে সেটা কার্যকর। তিনি জাফরুল্লাহ চৌধুরীর দ্রুত রোগমুক্তি কামনা করেন।

করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে যেসব বিশিষ্ট ব্যক্তি ও বিভিন্ন পেশাজীবী মারা গেছেন, তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান বিএনপির মহাসচিব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *