মঙ্গলবার, নভেম্বর ৩০, ২০২১

প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ সব কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে দুদকে অভিযোগ

প্রশিক্ষণের নামে ভুয়া বিল ভাউচার করে অর্থ লোপাটের অভিযোগ এনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি), অন্যান্য কমিশনার, ইসির সাবেক ও বর্তমান সচিব এবং কর্মকর্তা কর্মচারীদের বিরুদ্ধে দুদকে অভিযোগ করেছে সুপ্রিম কোর্টের ১০ আইনজীবী।

বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) সুপ্রিম কোর্টের ১০ আইনজীবী দুদক কার্যালয়ে এ অভিযোগ করেন।

অভিযোগে তারা জানান, প্রশিক্ষণের নামে ও ভুয়া বিল ভাউচার করে ৭ কোটি ৪৭ লাখ ৫৭ হাজার টাকা লোপাট করেছে ইসি। নির্বাচন কমিশনের নীতিমালা না মেনে ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন না নিয়ে প্রশিক্ষণে কোর্স ভাতা দেওয়া হয়েছে ৩ কোটি ৩৫ লাখ ৭৫ হাজার টাকা। যেখানে উপদেষ্টা পদে ১৯ লাখ ৭৬ হাজার টাকা, বিশেষ বক্তা খাতে ১২ লাখ ৭৫ হাজার টাকা ও কোর্স পরিচালক খাতে ১৪ লাখ ৯৩ হাজার ৮০০ করা হয়।

অভিযোগে আরও বলা হয়েছে, নির্ধারিত হারের চেয়ে বেশি ভাতা দেওয়া হয়েছে ১ কোটি ৩২ লাখ ১২ হাজার ২৮০ টাকা এবং নিয়মের বাইরে অর্থনৈতিক কোড পরিবর্তন করে ভাতা দেওয়া হয়েছে ২ কোটি ৭৯ লাখ ৭০ হাজার ৪৭৫ টাকা। এছাড়া, প্রশিক্ষণে অধিকসংখ্যক খাবার কিনে ৩৭ লাখ ৫৩ হাজার টাকা এবং ভুল বিল ভাউচারে ১০ লাখ তিন হাজার ২৫০ টাকা ব্যয় নিয়েও আপত্তি জানিয়েছিল অডিট অধিদপ্তর। গাড়ি মেরামতে ৬ লাখ ৬৬৬ টাকার ব্যয়ের অডিটও নিষ্পত্তি হয়নি বলে অভিযোগ দাখিল করেন এই দশ আইনজীবী। এর আগে নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিল গঠন করে দুর্নীতি ও অনিয়মের তদন্ত করার জন্য রাষ্ট্রপতির নিকট দাবী জানিয়েছেন দেশের বিশিষ্ট নাগরিকগণ।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img