বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২৭, ২০২২

নৌমহড়ার সঙ্গে মরুযুদ্ধেরও প্রস্তুতি নিল পাকিস্তান

একদিকে বিশ্বের ৪৫টি দেশের নৌবাহিনীর অংশগ্রহণে বিশাল নৌমহড়ার আয়োজন, অন্যদিকে তপ্ত মরুভূমিতে মাসব্যাপী অনুশীলন- নিজেরদের যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত করতে চূড়ান্ত প্রস্তুতি নিচ্ছে পাকিস্তান।

আরব সাগরে ছয়দিনের নৌমহড়া চলাকালীন সিন্ধু প্রদেশের থর মরুভূমিতে মাসব্যাপী অনুশীলন করছে পাকিস্তান সেনাবাহিনী।

এক বিবৃতিতে দেশটির সেনাবাহিনী এই তথ্য জানিয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, চরম মরু পরিবেশে কীভাবে যুদ্ধ জয় করা যায়, এটা রপ্ত করতেই এ অনুশীলন।

এ অনুশীলনের নাম দেওয়া হয়েছে ‘জিদার-উল-হাদিদ’। শুরু হয়েছে ২৮ জানুয়ারি, শেষ হবে ২৮ ফেব্রুয়ারি।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মরুভূমিতে লড়াই করার যে পরিকল্পনা তাদের রয়েছে, এটা যাচাইয়ের জন্যই চার সপ্তাহের এ প্রতিরক্ষা অনুশীলন।

করাচি কোরের সৈন্যরা এ কৌশলগত অনুশীলনে অংশ নিচ্ছেন। মরুযুদ্ধের কৌশল নিয়ে গবেষণা করতে ১৯৮৭ সালে সিন্ধু প্রদেশের হায়দরাবাদের ১৬৫ কিলোমিটার দূরে চর নামল স্থানে ‘ডেজার্ট ওয়ারফেয়ার স্কুল’ পরিচালনা করছে পাকিস্তান সেনাবাহিনী।

এদিকে, বিশ্বের ৪৫টি দেশের নৌবাহিনীর অংশগ্রহণে বিশাল নৌমহড়ার আয়োজন করেছে পাকিস্তান। আরব সাগরে মহড়াটি শুরু হয়েছে গত বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি)। ছয়দিনের এ নৌমহড়াকে পাকিস্তানের কূটনৈতিক সম্পর্ক উন্নয়নের ক্ষেত্রে দারুণ তাৎপর্যপূর্ণ পদক্ষেপ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

তুর্কি সংবাদ সংস্থা আনাদুলু জানিয়েছে, ‘আমান-২০২১’ শীর্ষক এ নৌমহড়ায় অংশ নেওয়া দেশগুলোর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, চীন, রাশিয়া ও তুরস্ক রয়েছে। এ মহড়া শেষ হবে ১৬ ফেব্রুয়ারি।

ইসলামাবাদভিত্তিক নিরাপত্তা বিশ্লেষক তালাত মাসুদ মস্কো ও বেইজিংয়ের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের উত্তেজনা প্রসঙ্গে বলেন, বর্তমান প্রেক্ষাপট বিবেচনায় প্রতিদ্বন্দ্বীসহ ৪৫টি দেশকে একসঙ্গে আনার বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ।

সূত্র: সাউথ এশিয়ান মনিটর

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img