মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২৫, ২০২২

বিধি-নিষেধ ভঙ্গ করে ক্ষমা চাইলেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী

লকডাউন অমান্য করে নিজ সরকারি বাসভবনে মদের আড্ডার আয়োজন করেছিলেন বরিস জনসন। আর এই অভিযোগে বিরোধীরা যখন তার পদত্যাগের দাবিতে সোচ্চার হয়ে উঠেছেন, সে সময়েই দেড় বছর আগের সেই ‘ভুলের’ জন্য ক্ষমা চাইলেন ব্রিটেনের প্রধামন্ত্রী বরিস জনসন।

বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) পার্লামেন্ট ভবনে এ সম্পর্কে বিবর্ণমুখে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

তিনি বলেন, আমার ব্যক্তিগত আচরণের কারণে জনগণ যে আমার নেতৃত্বধীন সরকারের ওপর ক্ষুব্ধ হয়েছেন- তা আমি অনুভব করতে পারছি। এবং এই ক্ষোভ স্বাভাবিক। কারণ, যাদের কাজ আইন প্রণয়ন করা- তারাই যদি আইনভঙ্গ করেন, তাহলে তা মেনে নেওয়া কষ্টকর।

বরিস বলেন, ব্যক্তিগত ভাবে আমি পার্টিতে ছিলাম মাত্র ২৫ মিনিট। ৬ টার দিকে আমি সেখানে গিয়েছিলাম, অতিথিদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেছিলাম, তারপর ৬ টা ২৫ মিনিটে অফিসে এসে কাজে যোগ দিয়েছি।

দেড় বছর আগে, ২০২০ সালের মে মাসে ব্রিটেনে যখন করোনার প্রথম ঢেউ চলছে, সে সময় বেশ কয়েকজন অতিথির জন্য লন্ডনের ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে নিজের সরকারি বাসভবন পার্টির আয়োজন করেছিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। ব্রিটেনের প্রথম লকডাউনের মধ্যে আয়োজিত সেই পার্টিতে শতাধিক অতিথি আমন্ত্রিত ছিলেন এবং সবাইকে যার যার মদ আনার আহ্বান জানানো হয়েছিল।

পার্টিতে অতিথিদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল ইমেইলের মাধ্যমে। সেই ইমেইলটি সম্প্রতি ফাঁস হয়েছে এবং তা থেকে জানা গেছে ২০২০ সালের ২০ মে আয়োজন করা হয়েছিল সেই গার্ডেন পার্টির।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img