বিরল: দক্ষিণ কোরিয়ার নাগরিককে হত্যার ঘটনায় ‘অন্তত দুঃখ’ প্রকাশ করেছেন কিম

দক্ষিণ কোরিয়ার জলসীমায় সে দেশের এক কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যার পর পুড়িয়ে ফেলার ঘটনায় ‘অন্তত দুঃখ’ প্রকাশ করেছেন উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জন উন। এ ঘটনাকে ‘অপ্রত্যাশিত ও বেদনায়ক’ বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট দপ্তর থেকে কিমের ‘দুঃখ প্রকাশের’ খবর নিশ্চিত করা হয়েছে বলে সংশ্লিষ্টদের বরাত দিয়ে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি। উত্তর কোরিয়ার নেতার দুঃখবোধকে ‘বিরল’ ঘটনা হিসেবে দেখা হচ্ছে।

সোমবার সাগরে উত্তরের সীমানা থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে থাকা একটি টহল নৌকা থেকে নিখোঁজ হয়ে যান এক কর্মকর্তা। পরে উত্তর কোরিয়ার জলসীমানায় তার লাশ পাওয়া যায়।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, উত্তরের সেনারা ওই কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যা করে। এরপর তার শরীরে তেল ঢেলে আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে, করোনাভাইরাসের প্রবেশ ঠেকাতে উত্তর কোরিয়া সীমান্তে কঠোর নজরদারির যে নির্দেশ দিয়েছে তার কারণেই দেশটির সৈন্যরা দক্ষিণের ওই কর্মকর্তার ওপর গুলি ছুড়েছিল।

এই অঘটনায় অনেকটাই অনুতপ্ত উত্তর কোরিয়া। বিশ্লেষকদের মতে, এই বিষয়ে পিয়ং ইয়ং দক্ষিণ কোরিয়াকে শান্ত রাখার চেষ্টা করছে।

বিষয়টি নিয়ে পাঠানো এক চিঠিতে কিম ‘অন্তত দুঃখ’ প্রকাশ করেছেন বলে জানিয়েছেন দক্ষিণের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা সুহ হুন। তাতে ভুল বশতঃ ঘটনাটি ঘটেছে বলে উল্লেখ করেছেন কিম। অবশ্য এ চিঠির ব্যাপারে উত্তর কোরিয়া থেকে কোনো ধরনের মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *