ড.মাওলানা আদিল খান হত্যাকাণ্ড গৃহযুদ্ধের আগুন জ্বালানোর ষড়যন্ত্র: মুফতী ত্বকী উসমানী

ইনসাফ | নাহিয়ান হাসান


পাকিস্তানের ড.মাওলানা আদিল খানকে শহীদ করার হত্যাকাণ্ড গৃহযুদ্ধের আগুন জ্বালানোর ষড়যন্ত্র বলে মন্তব্য করেছেন মুসলিম বিশ্বের অন্যতম আলেম ও দেশটির কেন্দ্রীয় শরীয়াহ আদালতের সাবেক বিচারপতি মুফতী ত্বকী উসমানী।

শনিবার (১০ অক্টোবর) নিজ টুইটার একাউন্টে তিনি এই প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন বলে ডেইলি পাকিস্তানের খবরে বলা হয়েছে।

মুফতী ত্বকী উসমানী বলেন, ড: মাওলানা আদিল খান হত্যাকাণ্ড গৃহযুদ্ধের আগুন জ্বালানোর ষড়যন্ত্র, এই ষড়যন্ত্রকে ধৈর্য ও বুদ্ধি দিয়ে ব্যর্থ করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, ড: মাওলানা আদিল খানের শাহাদাত একটি মর্মান্তিক জাতীয় ট্র্যাজেডি। এ-ই হত্যাকাণ্ডের ফলে আমরা এমন ব্যক্তিত্বকে হারালাম যিনি একদিকে যেমন মহান সাহাবায়ে কেরামের প্রতিচ্ছবি হয়ে দ্বীনি কাজ আঞ্জাম দিচ্ছিলেন, অপরদিকে ঐক্যবদ্ধ জাতীর নিয়মানুসারে জাতীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠায় নিরলসভাবে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন। আল্লাহ পাক তাঁর উপর শান্তি বর্ষিত করুন।

এই হত্যাকাণ্ডটিকে গৃহযুদ্ধ উসকে দেওয়ার ষড়যন্ত্র আখ্যায়িত করে মুফতী ত্বকী উসমানী বলেন, এই ষড়যন্ত্রকে ধৈর্য ও বুদ্ধি দিয়ে প্রতিরোধ করতে হবে। তাছাড়া, এই ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে দেওয়া আমাদের সকলের দায়িত্ব। এক্ষেত্রে প্রাথমিকভাবে সরকারের দায়িত্ব হল, হত্যাকারীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় নিয়ে আসা। গৃহযুদ্ধের সম্ভাব্য এই আগুন জ্বলার পূর্বেই যাতে সরকার তা নিভিয়ে দিতে সক্ষম হয় আমি সেই আশাই করি।

উল্লেখ্য, বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়্যাহ পাকিস্তানের সাবেক প্রধান মাওলানা সলিম উল্লাহ খানের পুত্র ও করাচির ফারুকিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের মুহতামিম ড:মাওলানা আদিল খান অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা শনিবার গুলি করে শহীদ করে।

সূত্র: ডেইলি পাকিস্তান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *