‘আল্লামা শফী রহ.-এর জীবনের শেষ ইচ্ছা ছিলো কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণার দাবি আদায় করা’

রাজধানীর খিলগাঁও-এ অবস্থিত জামিয়া ইসলামিয়া মাখজানুল উলুম মাদরাসার উদ্যোগে শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. এর জীবন শীর্ষক আলোচনা সভা ও দুআ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ সোমবার (৫ অক্টোবর) সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়ে জোহর পর্যন্ত এই আলোচনা সভা ও দুআ মাহফিল চলে।

অনুষ্ঠিত সভায় আল্লামা আহমদ শফী রহ. এর বর্ণাঢ্য জীবনের বিভিন্ন দিক নিয়ে দেশের শীর্ষ উলামায়ে কেরাম বলেন, ‘শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. একজন মহা জাগরণের নাম। তালিম, তরবিয়ত, তজকিয়ায়ে নাফস ও মানুষের দৈনন্দিন জীবনে শিরক বিদআত ও কুসংস্কার মুক্ত করতে তিনি বহুমুখী অবদান রেখে গেছেন। আল্লামা আহমদ শফী দেশকে নাস্তিক্যবাদী ও হিন্দুত্ববাদী গোষ্ঠির ষড়যন্ত্র থেকে রক্ষায় হেফাজতে ইসলামের মাধ্যমে এক ঐতিহাসিক ভূমিকা রেখেছেন। তিনি কাদিয়ানী সম্প্রদায়কে রাষ্ট্রীয়ভাবে অমুসলিম ঘোষণার দাবি আদায়ে আমৃত্যু প্রচেষ্টা চালিয়েছিলেন। তার জীবনের শেষ ইচ্ছা ছিলো সারা দেশে মহাসমাবেশ এর মাধ্যমে গণজাগরণ তৈরি করে সরকারকে বাধ্য করে কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণার দাবি আদায় করা। তার এই স্বপ্ন বাস্তবায়নে ওলামায়ে কেরামকে ঐক্যবদ্ধভাবে খতমে নবুওয়াত আন্দোলন জোরদার করতে হবে।”

বক্তাগন নাস্তিক্যবাদী ও কাদিয়ানী অপশক্তি মোকাবেলায় দেশের সর্বস্তরের তাওহীদি জনতাকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. এর অন্যতম প্রধান খলিফা, আন্তর্জাতিক মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়াত বাংলাদেশের সেক্রেটারি জেনারেল ও খিলগাঁও মখজানুল উলূম মাদরাসার মহাপরিচালক আল্লামা নুরুল ইসলাম জিহাদীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভা ও দুআ মহাফিলে বক্তব্য রাখেন, আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী, মুফতী মুহাম্মাদ ওয়াক্কাস, আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী, মাওলানা জুনাইদ আল হাবীব, মাওলানা জুবায়ের আহমদ চৌধুরী, মাওলানা মাহফুজুল হক, মাওলানা মহিউদ্দীন রব্বানী, মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস (মানিকনগর), মাওলানা মহিউদ্দিন ইকরাম, মাওলানা মামুনুল হক, মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী, মাওলানা নাজমুল হাসান, মাওলানা মুসা বিন ইজহার, মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী, মাওলানা শেখ মুজিবুর রহমান, মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ আইয়ুবী, মাওলানা এনামুল হক মুসা, মাওলানা আব্দুল খালেক শরিয়তপুরী, মাওলানা জহুরুল ইসলাম, মাওলানা শিব্বির আহমদ কাসেমী, মাওলানা ইউনুছ ঢালী, মাওলানা আশিক উল্লাহ ও মাওলানা রাশেদ বিন নূর প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *