শনিবার, ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২৩

কাশ্মীরে থাকা সেনাদের জন্য বাধ্যতামূলক মনস্তাত্ত্বিক প্রশিক্ষণ চালু করছে ভারত

প্রথমবারের মতো ভারতীয় সেনাবাহিনী দখলকৃত কাশ্মীর এলাকায় দায়িত্ব পালনরত সব সেনাদের জন্য বাধ্যতামূলক মনস্তাত্ত্বিক প্রশিক্ষণ চালু করেছে। ভারতীয় দখলদার বাহিনী উপত্যকাটিতে প্রতিনিয়ত স্বাধীনতাকামী যোদ্ধাদের হামলার শিকার হয়ে থাকে।

সেনা সূত্রমতে, পুলওয়ামা জেলার আওয়ান্তিপোরা এলাকার খ্রু’র ১৫ কর্পস ব্যাটল স্কুলে (সিবিএস) এই মডিউল চালু করা হয়েছে। র‍্যাঙ্কভেদে সব সেনাদেরকেই এখানে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। কাশ্মীরে মোতায়েন করার পর রি-ওরিয়েন্টেশান কর্মসূচির অংশ হিসেবে তাদের এই প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

লাইন অব কন্ট্রোল (এলওসি) এলাকায় যাদেরকে মোতায়েন করা হয়, তাদের রিওরিয়েন্টেশান কর্মসূচি চলে ১৪ দিন। আর যারা প্রত্যন্ত ও অনুন্নত এলাকাগুলোতে দায়িত্ব পালন করে, তাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হয় ২৮ দিন ধরে। নিয়মিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে নতুন এই মনস্তাত্ত্বিক প্রশিক্ষণ মডিউল চালু করা হয়েছে।

ভারতীয় এক কর্মকর্তা বলেছেন, সেনাদেরকে অবশ্যই নতুন পরিবেশের ব্যাপারে ধারণা দেওয়া হয় এবং প্রত্যন্ত অঞ্চল এবং এলওসি এলাকার পরিবেশ সম্পর্কে শারীরিক প্রশিক্ষণ দেয়া হয়।

২০১৯ সালের ৫ আগস্ট হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকার যখন ভারতের সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল করে কাশ্মীরকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করে, তখন থেকেই উপত্যকার স্বাধীনতাকামী যোদ্ধারা ভারতীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে তীব্র লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে।

সূত্র: সাউথ এশিয়ান মনিটর

spot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_img