‘আজারবাইজানে সন্ত্রাসবাদ ও মানবতা বিরোধী অপরাধ করছে আর্মেনিয়া’

ইনসাফ | সোহেল আহম্মেদ

তুরস্কের প্রধান বিরোধী দল রিপাবলিকান পিপলস পার্টির (সিএইচপি) প্রধান কামাল কিলিকাদারোগলু বলেছেন, আজারবাইজানের অধিকৃত আপার কারাবাখ অঞ্চলে সন্ত্রাসবাদ ও মানবতা বিরোধী অপরাধ করছে আর্মেনিয়া।
মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) নিজ দলের নেতাকর্মীদের সাথে এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

কিলিকদারোগলু বলেন, আর্মেনিয়া আজারবাইজানে বেসামরিক নাগরিকদের উপর আক্রমণ করেছে এবং উভয় পক্ষকে বন্দী বিনিময় ও মৃতদেহ উদ্ধার করার জন্য ঘোষিত অস্থায়ী যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেছে যা
মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ এবং স্পষ্ট সন্ত্রাসবাদ।

তিনি আরো বলেন, আজারবাইজানের বেসামরিক নাগরিকদের উপর আর্মেনিয়ার এমন হামলাকে কেউই সনর্থন করতে পারে না। রক্তপাত বন্ধ করতে এবং দ্রুত আজারবাইজানীয় অঞ্চল থেকে সরে আসতে আর্মেনিয়াকে আহ্বান জানান তিনি।
প্রসঙ্গত, আঞ্চলিকভাবে আজারবাইজানের একটি স্বীকৃত অঞ্চল নাগরনো-কারাবাখ নামে পরিচিত উচ্চ কারাবাখের বন্দীদের বিনিময় এবং উভয় পক্ষের সৈন্যের লাশ উদ্ধারের জন্য শনিবার এই যুদ্ধ বিরতি ঘোষণা করা হয়েছিল।

কিন্তু যুদ্ধ বিরতি লঙ্ঘন করে আর্মেনিয়ান বাহিনী আজারবাইজানের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর গঞ্জায় স্থানীয় সময় রবিবার দুপুরে একটি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় যদিও এই অঞ্চলটি প্রথম সারির জোনের বাইরে ছিল। এ হামলায় অসংখ্য মহিলা ও শিশুসহ আহত হয়েছেন এবং কমপক্ষে ৩৫ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে। এরপর থেকে দফায় দফায় হামলা চালিয়ে আজারবাইজানের বেসামরিক নাগরিকদের হত্যা করছে আর্মেনিয়া।
সূত্র: আনাদোলু এজেন্সি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *